আলমডাঙ্গার নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ঝুলিয়ে দিলো তালা

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিদায়ী এসএসসি পরীক্ষার্থী ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারামারী জের ধরে স্কুলের গেটে তালা লাগিয়ে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। গতকাল সকাল শনিবার ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
স্কুলের ১০ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের অভিযোগে জানা যায়, গত বুধবার স্কুলের বিদায়ী এসএসসি পরীক্ষার্থী সাউন্ড সিস্টেম দিয়ে উচ্চস্বরে গান বাজাচ্ছিল। ক্লাস চলাকালীন সময়ে ১০ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা স্কুলের এক শিক্ষককে ডেকে তাদের অসুবিধার কথা জানায়। ওই শিক্ষক বলে আমি স্কুলের কেউ না, আমাকে বলে লাভ নেই। এসময় ১০ম শ্রেণীর কয়েকজন শিক্ষার্থী বিদায়ী এসএসসি পরীক্ষার্থীদের গান বন্ধ করতে বলে। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১০ম শ্রেণীর ছাত্র সাকিব, হৃদয়, রিয়াদ, রনি, সাহারুল আহত হয়। তাদের নাগদহ গোলাম বানু হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। আহত ছাত্ররা ম্যানিজিং কমিটি ও প্রধান শিক্ষকের নিকট সুষ্ঠু বিচার দাবি করে। বিচার না পেয়ে গতকাল শনিবার সকাল ১০ টার দিকে স্কুলের প্রধান গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। এব্যাপারে বিদায়ী এসএসসি পরীক্ষার্থী হৃদয়, আকাশ, আলো, সাকিল, বিদ্যুত, আসিব বলে, আমরা অনুমতি নিয়েই স্কুল চত্বরে গান বাজাচ্ছিলাম। হঠাৎ ১০ শ্রেণীর কয়েকজন ছাত্র আমাদের মারধর করে। আমরা শুধু প্রতিহত করেছি মাত্র। এই ঘটনার জের ধরে প্রধান শিক্ষক আমাদের এসএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র আটকে রেখে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক আনান্দ কুমার শীল দৈনিক মাথাভাঙ্গাকে বলেন, ঘটনার দিন আমি স্কুলের কাজে যশোর বোর্ডে গিয়েছিলাম। স্কুলের এক শিক্ষক মারামারীর পূর্বে দায়িত্ব নিতে চাইনি এটা দুঃখজনক। এছাড়া স্কুলে মারামারীর ঘটনা খুবই হতাশাজনক। আমি ম্যানেজিং কমিটির সাথে কথা বলে জরুরি সভার আয়োজন করেছি। ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকল এসএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দেয়া হয়েছে ও দু’পক্ষের মধ্যে আপস হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More