আলমডাঙ্গায় ১০ টাকা কেজি দরে পুষ্টি চাল বিতরণের উদ্বোধনকালে জেলা প্রশাসক

জাতির জনকের সেই স্বপ্নের অনেকটাই পূরণ হতে চলেছে

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গায় ১০ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি করে ‘পুষ্টিচাল’ বিতরণের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ডাউকি ইউনিয়নের চাল বিতরণ কেন্দ্র থেকে সরকারের এই বিশাল কর্মযজ্ঞের উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।
২০২১-২০২২ অর্থবছরের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচিতে ১০ টাকা কেজিতে পুষ্টি চাল বিতরণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রনি আলম নূরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তেব্যে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, আপনারা সবাই জানেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখতেন, এদেশের প্রত্যেকটা মানুষ অন্ন পাবে, বস্ত্র পাবে, বাসস্থান পাবে, উন্নত জীবনের অধিকারী হবে। আজকে জাতির জনকের সেই স্বপ্নের অনেকটাই পূরণ হতে চলেছে। বর্তমান সরকার জাতির জনকের স্বপ্নপূরণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের টার্গেট ছিলো ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার। ২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই সেই টার্গেট পূরণ হয়েছে। দেশের মানুষের এখন অন্নের অভাব নেই, বস্ত্রের অভাব নেই, বাসস্থানেরও অভাব নেই। তিনি আরও বলেন, অন্ন বস্ত্রের পাশাপাশি সরকার একজনকেও গৃহহীন রাখবেন না। আমাদের চুয়াডাঙ্গা জেলাতে এক হাজার ১৩১ জন গৃহহীনের তালিকা করা হয়েছে। তার মধ্যে ৩৫৩ জনকে ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। অন্যদের গৃহনির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় বছরে ৫ মাস পুষ্টি চাল দেয়া হয়। এবছর উপজেলায় ৫ হাজার ২৪৫ জনকে ১০ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি করে পুষ্টি চাল বিতরণ করা হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রেজাউল ইসলাম, জেলা কারিগরি পরিদর্শক আনিসুর রহমান, উপজেলা কৃষি অফিসার হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাখছুরা জান্নাত। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুল হামিদের উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম, ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম দিপু, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) মিয়ারাজ হোসাইন, খাদ্য পরিদর্শক রাকিবুল ইসলাম, উপজেলা মিল চাতাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আশরাফুল হক, পৌর আ.লীগের যুগ্ম-সম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহিন রেজা শাহিন, কলেজ ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল হোসাঈন বাদশা, যুবলীগ নেতা ফারুক, আ.লীগ নেতা জয়নাল আবেদীন, আনিসুর রহমান, মকবুল, ইউপি সদস্য আব্দুল কুদ্দুস, আবু সাঈদ, বদর উদ্দিন, খেদ আলী, আরিফুল ইসলাম প্রমুখ।
আলমডাঙ্গা উপজেলায় ২০টি ভেন্যুতে ২০ জন ডিলারের মাধ্যমে ৫ হাজার ২৪৫ জনকে ১০ টাকা কেজি দরে প্রতি মাসে ৩০ কেজি হিসেবে পুষ্টি চাল দেয়া হবে। এ খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি চলবে বছরের ফেব্রুয়ারি, মার্চ, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর মিলে ৫ মাস।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More