এ চেয়ার শুধু মুক্তিযোদ্ধাদের

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গাসহ জেলার ৪টি থানায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি করে সংরক্ষিত চেয়ার রাখা হয়েছে। থানা অফিসার ইনচার্জের সাথে সাক্ষাৎ কিংবা প্রয়োজনে আসা বীর মুক্তিযোদ্ধা শুধুমাত্র ওই চেয়ারে বসবেন। মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সম্প্রতি পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জেলার প্রতিটি থানায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ওই বিশেষ চেয়ার প্রদান করেছেন।
স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের নিশান আমাদের জাতীয় পতাকা অঙ্কিত বিশেষ মর্যাদার চেয়ারটি অফিসার ইনচার্জের ডান পাশে শোভা পেতে দেখা গেছে। সংরক্ষিত চেয়ারটি থানায় আগতদের কৌতুহলী করে তুলছে।
আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম জানান, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বসার জন্য পুলিশ সুপার জেলার প্রতিটি থানায় একটি করে চেয়ার প্রদান করেছেন। এর মাধ্যমে বীর মুক্তিযোদ্ধারা আরও বেশি সম্মানিত হলেন। জেলা প্রশাসকের এ পদক্ষেপ সকলেই প্রশংসা করছেন।
আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ গোলাম ছরোয়ার বলেন, জীবনবাজি রেখে যারা আমাদের জন্য অমøান স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, বিশ্বের মানচিত্রে আমাদের মর্যাদা সমুন্নত করেছেন, তারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের বিশেষ মর্যাদা প্রদানের ব্যবস্থা করে পুলিশ সুপার উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন। ভবিষ্যতে হয়তো চুয়াডাঙ্গা জেলার মত দেশের সকল থানায় মুক্তিযোদ্ধাদের এভাবে সম্মানিত করা হবে। শুধু থানায় কেন? প্রশাসনের সকল স্তরে এ পদক্ষেপ অনুসরণ করা যেতে পারে।
পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। উপযুক্ত সম্মান তাঁদের প্রাপ্য। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযোগ্য মর্যাদা দিতে পারলে আমরাও সম্মানিত হতে পারবো। তাছাড়া, বীর মুক্তিযোদ্ধারা এখন বয়সের ভারে ভারাক্রান্ত। সিনিয়র সিটিজেন হিসেবেও তাঁদের আবেদন সর্বাধিক। আমি প্রতি বছর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দিয়ে আসছি। সেই মানসিকতা থেকেই এ উদ্যোগ নিয়েছি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More