করোনার ভয়াল থাবায় বিপর্যস্ত ঝিনাইদহ জেলা : মৃত্যু ৫ আক্রান্ত ২৩৬

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ঝিনাইদহ জেলায় দ্রুত করোনার ভয়াল থাবা বিস্তার ঘটছে। হাটে বাজারে, শহরের মার্কেটে, অফিস আদালতে, গ্রামে গঞ্জে, পাড়া মহল্লায় মানুষের ভীড় ও বেপরোয়া আনাগোনায় দিনকে দিন করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে ঝিনাইদহের স্বাস্থ্যকর্মীদের কপালে দুঃশ্চিন্তার ভাজ পড়েছে। এদিকে উপসর্গ নিয়ে মৃত আরও ২ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৫ জন। এর মধ্যে কালীগঞ্জে ৩ জন ও শৈলকুপায় ২ জন রয়েছে। সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, ২৮ জুন করোনার উপসর্গে মারা যান কালীগঞ্জ উপজেলার হেলাই গ্রামের মোস্তাক হোসেন ও ৩০ জুন মারা যান আব্দুর রশিদ। বৃহষ্পতিবার তাদের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু হলো। বৃহস্পতিবার নতুন করে ২৭ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সকালে কুষ্টিয়া ল্যাব থেকে আসা ৯৩ জনের মধ্যে ২৭ জনের রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ২৩৬ জন। সুস্থ হয়েছে ৯৪ জন। নতুন আক্রান্ত ২৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৯জন, কালিগঞ্জে ১৪ জন, শৈলকূপায় ২জন, হরিনাকুন্ডু ১ জন ও মহেশপুর ১ জন রয়েছে।। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন অফিসের করোনা সেলের মুখপাত্র ডা. প্রসেনজিত বিশ^াস পার্থ জানান, আক্রান্ত এলাকা হচ্ছে শহরের গিতাঞ্জলী সড়ক, আদর্শপাড়া, পুলিশ লাইনস, রাজধনপুর, দক্ষিণচানপুর, ছোটকামারকুন্ডু, চরমুরারীদহ নলডাঙ্গা এলাকার, কালিগঞ্জের ফয়লা, কলেজরোড, আলীগঞ্জ, আড়পাড়া, রঘুনাথপুর, বাখেরগাছি, দৌলতপুর এলাকার, হরিনাকুন্ডুর ফায়ারস্টেশন এলাকার, মহেশপুরের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকার এবং শৈলকূপার খুদারগ্রাম, হুদাকুশবাড়িয়া ও ধলহরাচন্দ্রপুর এলাকার বাসিন্দা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More