খাসকররা ইউপি নির্বাচনে নৌকা-আনারসের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর : পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: আলমডাঙ্গার খাসকররায় নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। গতরাত সাড়ে ১১টার দিকে রামদিয়া ও কাবিলনগর গ্রামে দুটি অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয় ২টি নৌকা। প্রতিপক্ষের লোকজন মোটরসাইকেল ও লাটাহাম্বার নিয়ে পৃথক দুই অফিসে হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন নৌকার প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান রুন্নু। অপরদিকে, আনারস প্রতীকের সমর্থক তালুককররা গ্রামের শাহাবুলের দোকানে রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রতিপক্ষরা হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ করেন আনারস প্রতীকের প্রার্থী তাফসির আহম্মেদ মল্লিক লাল। এ ঘটনার পর তারা নিজেদের অফিস ভাঙচুর করে দায় চাপানোর পরিকল্পনা করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
এ ঘটনায় দুই পক্ষের সমর্থকের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। মোড়ে মোড়ে অবস্থান নেয় তাদের লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবেশ শান্ত করে। আলমডাঙ্গা থানার পরিদর্শক গিয়ে দুই পক্ষকে পরিস্থিতি উত্তপ্ত না করে বাড়ি ফেরার পরামর্শ দেন।
খাসকররা ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান রুন্নু অভিযোগ করেন বলেন, রাত সাড়ে ১১টার দিকে দুই মোটরসাইকেলে চারজন এসে রামদিয়া গ্রামে আমার নির্বাচনী অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এছাড়া লাটাহাম্বারে বেশ কয়েকজন গিয়ে কাবিলনগরের অফিস ভাঙচুর করে।
অপরদিকে, আনারস প্রতীকের প্রার্থী তাফসির আহম্মেদ মল্লিক লাল অভিযোগ করে বলেন, তালুককররা গ্রামে আমার সমর্থক শাহাবুলের মুদি দোকানে পোস্টার টাঙানো ছিলো। সামনেই একটি আনারস প্রতীকের মডেলও ছিলো। রাত সাড়ে ১০টার দিকে সেখানে গিয়ে আনারসের পোস্টার কেন রাখা হয়েছে জানতে চান নৌকার প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান রুন্নু। শাহাবুল তার জবাবে আনারস সমর্থন করেন বলে জানালে রুন্নুর ভাতিজা তুষারের নেতৃত্বে তাকে মারধর করা হয়। ভাঙচুর করা হয় দোকান। এরপর তারা তালুককররা গ্রামের রবিউল ইসলামের বাড়ির সামনে গিয়ে আনারসের টাঙানো পোস্টার ছিঁড়ে দেয়।
ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর দু’পক্ষেরই সমর্থকরা জড়ো হতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের শান্ত করে বাড়ি ফেরার পরামর্শ দেন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More