চুয়াডাঙ্গায় আরও ৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার আরও ৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। নতুন শনাক্ত তিনজনই চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের বাসিন্দা। গতকাল রোববার আরও ৩৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করেছে চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ।

চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ গতকাল রোববার পূর্বের ২৯ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পায়। ২৬ জনের নেগেটিভ হলেও ৩ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছে। নতুন শনাক্ত ৩জন চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের বাজারপাড়ার, ফার্মপাড়ার ও জোয়ার্দ্দারপাড়ার বাসিন্দা। নতুন ৩ জনকে নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫শ ৬৩ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪শ ৬৯ জন। গতকাল ৩৭ জনের নমুনা নিয়ে মোট নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৭শ ২৫ জনের। গতরাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক তথা হাসপাতালে আইসোলেশনে ছিলেন ৭ জন, বাড়িতে তথা হোম আইসোলেশনে ছিলেন ৪৬ জন।

শীতে নোভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বাড়তে পারে। ঘরে ঘরে সর্দি কাশি রোগী বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেকেই নমুনা পরীক্ষা করিয়ে নিশ্চিত হওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছেন। ফলে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ছে। তবে নমুনা পরীক্ষা তুলনায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা অনেকটা কম। আক্রান্তের সংখ্যা কম হলেও যেহেতু আশেপাশেই রয়েছে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি, সেহেতু সতর্ক না হলে সকলেরই সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। শীতে সংক্রমণের হার আশঙ্কাজনক বাড়তে পারে বলে বারবারই স্বাস্থ্য বিভাগসহ করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধ কমিটির তরফে সকলকে সতর্ক করা হচ্ছে। স্টেশন, বাসস্ট্যান্ড, হাটবাজার বিপনীবিতানে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণসহ ভ্রাম্যমাণ আদালতও পরিচালনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সরকারি আধা সরকারি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলোতে ঘোষণা দিয়ে বলা হয়েছে, মাস্ক না পরলে তাকে প্রতিষ্ঠানের কোনো সেবা দেয়া হবে না। এরপরও চুয়াডাঙ্গায় মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার তেমন নজির মিলছে না।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More