চুয়াডাঙ্গায় কৃষকের মধ্যে কৃষিযন্ত্র বিতরণকালে এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার

ব্যয় যাতে না বাড়ে তার জন্য হারভেস্টার ভালো ভূমিকা রাখবে

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় প্রায় ২ কোটি ১৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা ভর্তুকি দিয়ে চুয়াডাঙ্গায় ২৪টি কৃষি সরঞ্জাম বিতরণ করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের আয়োজনে সমন্বিত ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্পের আওতায় উন্নয়ন সহায়তা কার্যক্রমের মাধ্যমে এগুলো বিতরণ করা হয়। গতকাল সোমবার চুয়াডাঙ্গা টাউন ফুটবল মাঠে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন প্রধান অতিথি থেকে ৪টি কম্বাইন হারভেস্টার, ৩টি রিপার ও ২টি রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্র ২৪ জন কৃষকের মধ্যে বিতরণ করেন। এসময় এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার বলেন, এ যন্ত্রগুলো বাংলাদেশে তৈরি হয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বিদেশ থেকে কৃষকদের জন্য যন্ত্রগুলো আমদানি করে ৫০ ভাগ ভর্তুকির মাধ্যমে তাদেরকে দিয়েছেন। ধান কাটা মরসুমে দেশে শ্রমিক সংকট দেখা দেয় সেটা পূরণের জন্যই এ সহযোগিতা। এতে ফসল উৎপাদন ব্যয় কম হবে। ব্যয় যাতে না বাড়ে তার জন্য হারভেস্টার ভালো ভূমিকা রাখবে। তিনি আরও বলেন, হারভেস্টার ঘণ্টায় এক একর জমির ধান কাটতে পারে। পরিশেষে তিনি একটি রেট নির্ধারণ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কৃষি আমাদের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি একটি অংশ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আলী হাসান, সদর নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান, সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ তালহা জুবাইর মাসরুর। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদুজ্জামান লিটু বিশ্বাস, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন, সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শাহিন রাব্বি ও আমিরুর ইসলাম রাসেল।
কৃষি বিভাগসূত্রে জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা জেলায় ১৫টি কম্বাইন হারভেস্টার, ৭টি রিপার ও ২টি রাইস ট্রান্সপ্লান্টার বিতরণ করা হচ্ছে। প্রতিটি হারভেস্টার প্রায় ২৮ লাখ, রিপার ১ লাখ ৮০ হাজার ও রাইস ট্রান্সপ্লান্টার সাড়ে তিন লাখ টাকা হিসেবে ২৪ জনের এর মধ্যে ৫০ শতাংশ হিসেবে ২ কোটি ১৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। বাকী টাকা দিবে কৃষকরা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More