আজ সারাদেশে করোনা আক্রান্ত ৪১৪ জন। মারা গেছে ৭ । চুয়াডাঙ্গায় আক্রান্ত ৬ জন

স্টাফ রিপোর্টার: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪১৪ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৭ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৮৬ জন, মোট মারা গেছেন ১২৭ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১০৮ জন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে করোনা নিয়ে নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর।

এদিকে চুয়াডাঙ্গায়   নতুন করে ৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন ডা. এএসএম মারুফ হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ২ জন ও  আলমডাঙ্গা উপজেলার ৪ জন। এরমধ্যে সদর হাসপাতালের একজন সিনিয়র স্টাফ নার্সও রয়েছেন।

সিভিল সার্জন জানান, জেলার চার উপজেলা থেকে মোট ১৫৮ জনের দেহের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর, খুলনা এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়। এরমধ্যে গত বুধবার হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সসহ ৪১ জনের নমুনা যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়। আজ  বেলা ১১টায় ২১ জনের রিপোর্ট আসে চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে। এরমধ্যে ৬ জন করোনাভাইরাসে সনাক্ত হয়েছেন এবং বাকীরা সনাক্ত হননি। পরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডের দুইজন চিকিৎসক, নার্সসহ ১৫ জন স্টাফকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। একই সাথে আক্রান্ত ৬ জনকে তাদের নিজ বাড়িতে আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করে সেখানেই চিকিৎসা দেওয়া হবে। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলা ডিঙ্গেদহের ১ জন, হুচুকপাড়ার ১ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলার গোপালনগরের ১ জন, খাদিমপুরের ১ জন, বটিয়াপাড়ার ১ জন ও শিয়ালমারীর ১জন। এরমধ্যে ৩ জন নারী ও ৩ জন পুরুষ।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শামীম কবির জানান, গত ৬ এপ্রিল থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সদর উপজেলার বেগমপুর গ্রামের একজন কিডনি রোগী চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি ঢাকাতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হন। বিষয়টি জানার পর হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডের ১১জন চিকিৎসক নার্সসহ ৪১ জনের নমুনা সংগ্রহ করে গেল গেল বুধবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে পাঠানো হয়। এরমধ্যে আজ সকালে ২১ জনের রিপোর্ট আসে চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগে। এতে ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত মাসের ১৬ মার্চ থেকে চলমি মাসের ২২ এপ্রিল পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গা জেলার চারটি উপজেলা থেকে মোট ১৫৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তার মধ্যে রির্পোট  এসেছে ১৩১ জনের। এরমধ্যে করোনা পজেটিভ  হয়েছে ৭ জনের।

উল্লেখ্য, গত মাসের ১৯ মার্চ চুয়াডাঙ্গায় প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ইতালি ফেরত এক যুবক চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ১৫ দিন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।এছাড়া ঢাকা থেকে পালিয়ে আসা করোনায় আক্রান্ত শহিদ উদ্দিনকে আবারও বিশেষ ব্যবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

####জহির রায়হান সোহাগ

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More