চুয়াডাঙ্গায় ফিরলেন নৌকার মাঝি টোটন জোয়ার্দ্দার : পথে পথে নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা সংবর্ধনা

নেত্রী আমাদের সম্মান রেখেছেন আমরাও বিজয় দিয়ে তাকে সম্মানিত করবো

স্টাফ রিপোর্টার: জননেত্রী শেখ হাসিনা নৌকা প্রতীক দিয়ে আমাদের সম্মান রেখেছেন, আমাদের দায়িত্ব হলো তার সম্মান রাখা। আমরা বিজয় অর্জন করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দিয়ে তাকেও উপযুক্তভাবে সম্মানিত করবো। ঢাকা থেকে ফেরার পথে গতকাল রোববার বিকেলে চুয়াডাঙ্গার বদরগঞ্জ বাজারে রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনকে আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন নেতৃবৃন্দ।
কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক পৌর নির্বাচনে নৌকার মাঝি রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন বলেন, আমরা কাজ করা মানুষ, আমরা চুয়াডাঙ্গার সার্বিক উন্নয়ন করেছি এবং আগামীতেও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যোগ্য মনে করেই নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। আমি তাকে শ্রদ্ধাভরে কৃতজ্ঞতা ও সম্মান জানাই।
চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও সম্মান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত ও সুসংগঠিত একটি দল। প্রধানমন্ত্রী আমাকে মনোনয়ন দিয়ে আমার পৌরসভাকে আরও এগিয়ে দিয়েছেন। আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে টোটন জোয়ার্দ্দার আরও বলেন, আপনারা নৌকার নির্বাচন করার জন্য আজ থেকে মাঠে নেমে যান। ইনশাআল্লাহ্ জয় আমাদের হবেই।
আসন্ন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন নৌকার মাঝি হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর গতকাল রোববার বেলা ১২টায় ঢাকা থেকে সড়ক পথে চুয়াডাঙ্গার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন। পথিমধ্যে ঝিনাইদহ পৌঁছুলে বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের পক্ষ থেকে সেখানে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। তখন দুপুর গড়িয়ে বিকেল, চুয়াডাঙ্গার প্রবেশমুখ বদরগঞ্জ বাজারে অপেক্ষায় ছিলেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। প্রিয় নেতা রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন সেখানে পৌঁছুনোর আগে থেকে অপেক্ষমাণ চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যার আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিকের নেতৃত্বে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। সেখান থেকে বিশাল গাড়িবহর নিয়ে পৌঁছায় সরোজগঞ্জ বাজারে। সেখানেও তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় এবং আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যায় পৌঁছায় ডিঙ্গেদহ বাজারে। এখানে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে প্রিয় নেতা রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দারকে সংবর্ধনা জানান শংকরচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান। পথিমধ্যে চুয়াডাঙ্গা বাসটার্মিনাল এবং রেলবাজারের ট’ বাজার দোকান মালিক সমিতির পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় শ্রমিকলীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রিপন ম-ল এবং মাইক্রোস্ট্যান্ড শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
এদিকে, গতকাল বিকেল থেকেই আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে অপেক্ষায় ছিলেন হাজারো জনতা। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় গাড়ি বহর সেখানে পৌঁছুলে নেতাকর্মীরা আনন্দ উল্লাসে মেতে ওঠেন এবং জেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, স্বাস্থ্যবিভাগ, ছাত্রলীগসহ ভক্তরা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। সে সময় সেখানে মিষ্টি বিতরণসহ চলে আনন্দ উৎসব।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More