চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরসহ সারাদেশে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি মিছিল

সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান
স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লা, রংপুর, নোয়াখালীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় পূজাম-পে সাম্প্রদায়িক হামলা ও ভাঙচুরের প্রতিবাদে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ‘সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ এই সেøাগানে চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় মিছিল শেষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ থেকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিষদাঁত না ভাঙা পর্যন্ত রাজপথে থাকার ঘোষণা দিয়েছে আওয়ামী লীগ। একই সঙ্গে উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান জানিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। সমাবেশে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ জন্ম থেকে অসাম্প্রদায়িকতার চেতনা ও আদর্শ লালন ও বিশ্বাস করে। এখানে সব ধর্মের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছে। সমাবেশ থেকে হামলাকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে গ্রেফতারের মাধ্যমে বিচারের দাবি জানান সনাতন ধর্মাবলম্বী নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। বক্তারা বলেন, দেশে স্বাধীনতা বিরোধী একটি শক্তি আবারও মাথা তুলে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করছে তারা। তাদের দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। আমাদের দেশে হিন্দু মুসলমান সবাই ভাই ভাই। এখানে সাম্প্রদায়িক চেতনার কোন সুযোগ নেই।
চলমান সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে চুয়াডাঙ্গায় মানববন্ধন করেছে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠন। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় শহরের শহীদ হাসান চত্বরে মানববন্ধনের আয়োজন করে জেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠন। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আসাদুল হক বিশ্বাস, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক মতিয়ার রহমান মতি, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জানিফ, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্মআহ্বায়ক মাফিজুর রহমান মাফি, সদর উপজেলা কৃষক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল মতিন দুদুসহ সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
সাম্প্রদায়িক চেতনার বিরুদ্ধে শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশনায় চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আয়োজনের এ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বেলা দুপুর ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা মোহাম্মদী শপিং কস্পেক্সের সামনে থেকে একটি শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে গিয়ে সমাপ্তি হয়। পরে যুবলীগের কার্যালয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের সদস্য সাজেদুল ইসলাম লাভলু, আজাদ আলী, আবু বক্কর সিদ্দিক আরিফ, হাফিজুর রহমান হাপু, আলমগীর আজম খোকা, যুবলীগ নেতা শেখ শাহী, মাসুদুর রহমান মাসুম, বিপুল জোয়ার্দ্দার, হাসানুল ইসলাম পলেন, জুয়েল জোয়ার্দ্দার, আল ইমরান শুভ, বিপ্লব হোসেন, টিটু, সুমন, রামীম হাসান সৈকত, সামিউল শেখ সুইট, তানভীর রেজা টুটুল, দিপু বিশ্বাস, লুকমান, আলিম, বক্কর, আশা, রুবেল, জুয়েল, মোতালেব, রাসেল, ইমরান, নয়নসহ যুবলীগের অন্যান্য নেতাকর্মীরা।
জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা আয়োজন করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বাসস্ট্যান্ডের বঙ্গবন্ধু উন্মুক্ত মঞ্চের সামনে থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে শোভাযাত্রাটি একই স্থানে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল, উপজেলা চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকি, মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন খান, আন্দুলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার, কেডিকে ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুল বাশার শিপলু, উথলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান, রায়পুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান মাস্টার ও উপজেলা যুবলীগ নেতা শামীম ফেরদৌস প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ, এই সেøাগানকে সামনে রেখে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা বের করেছে মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগ। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলের দিকে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা বের করা হয়। মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে মেহেরপুর প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত শান্তি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক পিপি পল্লব ভট্টাচার্য, উপ-প্রচার সম্পাদক শাশ্বত নিপ্পন চক্রবর্তী, মেহেরপুর জেলা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক শহীদ সরফরাজ হোসেন মৃদুল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুস সালাম বাঁধন প্রমুখ। মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বারিকুল ইসলাম লিজনের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বড় বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম খোকন, শহর যুবলীগের সভাপতি শেখ কামাল, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ প্রমুখ। এর আগে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ, এ সেøাগানকে সামনে রেখে শান্তি শোভাযাত্রা বের করা হয়। মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিমের নেতৃত্বে শান্তি শোভাযাত্রাটি মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনে থেকে শুরু করে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মেহেরপুর প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হয়।
এদিকে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনায় শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালি ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ মেহেরপুর জেলা শাখা। বিকেলে এ শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালি, সমাবেশ করা হয়। মেহেরপুর জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌরসভার মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটনের নেতৃত্বে শান্তি ও সম্প্রীতি র‌্যালিটি মেহেরপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টারের সামনে থেকে শুরু করে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়।পরে সেখানে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মেহেরপুর জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌরসভার মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটনের সভাপতিত্বে সমাবেশ বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শহিদুল ইসলাম পেরেশান, সদর উপজেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, জেলা যুবলীগের সদস্য সাজেদুর রহমান সাজু, যুবলীগ নেতা বিপ্লব,জেলা ছাত্র লীগের সহসভাপতি শোভন সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা, মেহেরপুর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল প্রমুখ।
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দেশব্যাপী ধর্মান্ধ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে ঝিনাইদহে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে থানা ও পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহরের পায়রা চত্বর থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবু জীবন কুমার বিশ্বাস, থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. আব্দুর রশীদ, সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ানম্যান শহিদুল ইসলাম হিরণ এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ বিম্বাস যুবলীগ নেতা কামাল হোসেন প্রমুখ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যানগণসহ সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More