জনগণকে দ্রুত ও স্বচ্ছ্বতার সাথে সেবা প্রদান নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য

চুয়াডাঙ্গা জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান

স্টাফ রিপোটার: চুয়াডাঙ্গা জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থান, যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ পরিবেশের ভারসম্য রক্ষার্থে গ্রহীত কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষে সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়ে সভার সভাপতি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান বলেছেন, সরকারি চাকরিজীবী সবাই জনগণের সেবক। সকল দপ্তরের মধ্যে সমন্বয় রেখে জনগনের প্রত্যাশিত সেবা নিশ্চত করতে হবে। জনগণকে দ্রুত ও স্বচ্ছ্বতার সাথে সেবা প্রদান নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য।

গতকাল রোববার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাত হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরীন, জেলা পর্যায়ের সরকারি দফতর সমূহের অধিকাংশ কর্মকর্তার উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সভায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের পয়নিষ্কাষন ব্যবস্থার উন্নতি করার বিষয়টি যেমন গুরুত্বসহকারে উঠে আসে, তেমনই স্বেচ্ছাসেবীদের চরম স্বেচ্ছাচারিতায় রোগীদের মধ্যে অনেকেই কীভাবে অতিষ্ঠ তারও খ-াংশ তুলে ধরা হয়। বলা হয়, হাসপাতালের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে স্বেচ্ছাসেবীমুক্ত করার প্রয়োজন উপলব্ধি হচ্ছে। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার। পৌর এলাকার বর্জ্য দ্রুত অপসারণের উপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়ে, ভাগাড় স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হলে পৌর এলাকার পরিবেশ আরও ভাল হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নতিরও তাগিদ দেয়া হয়। দর্শনা মুজিবনগর মহাসড়ক নির্মাণের কাজে যেসব গাছ বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তা নিয়ম মেনে কেটে দ্রুত অপসারণের বিষয়টি বিষদে আলোচনায় উঠে আসে। ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের কোভিড-১৯ প্রতিরোধক টিকা প্রদান কর্মসূচি বাস্তবায়নে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ইতোমধ্যেই টিকা প্রদানের কাজ শুরু হয়েছে। এ বিষয়ে সিভিল সার্জন বলেন, জেলায় ১ লাখ ৭০ হাজার ৮২ জন শিশুকে ফাইজারের টিকা প্রদানের প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। শিশুদের টিকা প্রদানে সর্বাত্মক সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। শিক্ষক ও অভিভাকদেরও এ বিষয়ে সচেতনভাবে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশলের তরফে বলা হয়, কুড়–লগাছি ও রায়পুর হাট বাজারের উন্নয়ন কাজের এনওসি পেলে নির্মাণ কার্যক্রম শুরু করা যাবে। প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে যেসকল বিদ্যালয়ের শিক্ষক দীর্ঘদিন অনুপস্থিত তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। যারা দেশের বাইরে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, বিদ্যালয়গুলোতে যাতে শিক্ষাদানে শিক্ষকরা আরও আন্তরিক হন সে লক্ষ্যে নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। এ নীতিমালা অনুযায়ী বিদ্যালয়গুলো পরিচালনার কার্যক্রম শুরু হলে শিক্ষার মান বৃদ্ধি পেতে বাধ্য। কৃষি সম্প্রসারণের কাজ যেমন স্বাভাবিক গতিতে এগিয়ে চলেছে, তেমনই গণপূর্ত বিভাগও উন্নয়নমূলক কাজ সম্পন্ন করছে বলে উল্লেখ করা হয়। চুয়াডাঙ্গা স্টেশনের পাশে মাছের আড়ৎপট্টি স্থানান্তর করে সড়ক রক্ষাসহ এলাকার পরিবেশ ফেরানোর লক্ষেও আলোচনা করা হয়। বলা হয়, স্টেশনের অপর প্রান্তের একটি স্থান রয়েছে যেখানে মাটি ভরাট করে মাছপট্টি স্থানান্তরের পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন দফতরের চলমান উন্নয়ন কর্মকা-ের সংক্ষিপ্ত তথ্য সভায় উঠে আসে। ডেঙ্গিরোধে মশক নিধনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বাড়ির আশেপাশে ভাঙাচুরা পাত্র, পরিত্যক্ত টায়ার, ডাবের খোসা মালা, টবে যাতে পানি জমে না থাকে তা দেখে পরিস্কার করতে হবে। চোখ ওঠা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। সংক্রমিত এ রোগে যারা আক্রান্ত হচ্ছেন তাদের মাধ্যমে যাতে এটা না ছড়ায় সেদিকে বিশেষ নজর দিয়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিতে হবে। যারা আক্রান্ত হননি তাদেরকেও সংক্রামক এ রোগ থেকে নিরাপদে থাকতে হলে সতর্কতা অবলম্বনের প্রয়োজন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সকল কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলায় জনগণের কল্যাণে সঠিকভাবে কাজ করতে পারলে আমরা যারা দায়িত্বে রয়েছি তাদের দায়িত্বপালন সফল হবে। নিষ্ঠার সাথে দায়িত্বপালনের মাধ্যমে সরকারের প্রত্যাশা অনুযায়ী স্বচ্ছ্বতার সাথে আমাাদের কাজ করতে হবে। তিনি আজ ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাণের ভোট গ্রহণ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করে বলেন, এ নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে যাবতীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More