জীবননগরে চুয়াডাঙ্গা জেলা আ. লীগ নেতৃবৃন্দের ঝটিকা সফর : দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর বিরুদ্ধে ২৬ জানুয়ারি সিদ্ধান্ত

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার রাতে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ জীবননগরে ঝটিকা অভিযানে আসেন। এসময় নেতৃবৃন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দরে সাথে বৈঠকে বসেন।

বৈঠকে বক্তাগণ বলেন, দলীয় সীদ্ধান্ত অনুযায়ী কোনো নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার কোনো সুযোগ নেই। কেউ যদি করেন তবে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হবে। যেহেতু আগামী ২৬ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন এ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করলে তার বিরুদ্ধে দলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক দল থেকে বহিস্কার করা হবে। বক্তাগণ বলেন, আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী রফিকুল ইসলামকে বিজয়ী করতে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। এর কোন বিকল্প নেই। কেও যদি দলের এ সিদ্ধান্ত অমাম্য করে তাহলে তার বিরুদ্ধে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

বৈঠকে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সী আলমগীর হান্নান, জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য পিপি অ্যাড. বিল্লাল হোসেন ও চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দীন হেলা। জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল ও জীবননগর পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More