ডায়াবেটিক হাসপাতালকে অতি শিগগিরই ডিজিটাইলেশন করা হবে

চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের আলোচনা সভায় টোটন জোয়ার্দ্দার

স্টাফ রিপোর্টার: ‘আগামীতে নিজেকে সুরক্ষায় ডায়াবেটিসকে জানুন’ এ সেøাগানে চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-২০২২ জাকজমকভাবে উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল সোমবার ডায়াবেটিক সমিতি নানা কর্মসূচি পালন করেছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো সকাল সোয়া ৮টায় শহরের ডায়াবেটিক সমিতি কার্যালয় থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।

এরপর চুয়াডাঙ্গা ডায়াবেটিক সমিতি কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন সভাপতিত্বে করেন। ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম সাহানের সঞ্চালনায় সভায় সমিতির সহ-সভাপতি মুন্সি আলমগীর হান্নান ও আজাদ মালিতা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মহ: শামসুজ্জোহা, কোষাধ্যক্ষ আলাউদ্দীন হেলা, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাড. সেলিম উদ্দীন খান, মেডিকেল অফিসার ডা. মিজানুর রহমান, ডা. নাহিদ ফাতেমা রত্না ও পুষ্টিবিদ উম্মে আতিকা আঁখি বক্তব্য রাখেন। সভায় বায়তুল আমান জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন মাসুম বিল্লাহ পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন। এ সময় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাড. আকসিজুল ইসলাম রতন, অ্যাড. রফিকুল ইসলাম ও এএইচএমএম কামাল তুহিন, আজীবন সদস্য জোনারুল ইসলাম, শফিকুর রহমান, ইলিয়াস হোসেন, ডায়াবেটিক সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনাসভায় সমিতির সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন বলেন, ডায়াবেটিস সম্পর্কে জানতে হবে। আমরা নিজেকে কেন সুরক্ষা করতে পারছি না। আমাদের যেভাবে চলা দরকার সেভাবে চলতে পারছি না। রোগবালাই আমাদের শরীরে বাসা বাঁধছে। আমরা শিক্ষিত হয়েছি। তারপরও কেন আমরা সচেতন হতে পারছি না। শতকরা ৬০ ভাগ নারী গ্রাম হতে আসছেন। এটা কি জন্য। তাদের জীবনে রেস্ট নেই। মানুষ রাস্তার খাবার খেতে পছন্দ করে। এটা বর্জন করতে হবে। নিজেকে সুরক্ষা করতে হবে। আমি নিরাপদ থাকলে আমার পরিবার বাঁচবে। এই রোগ সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা এবং তাদের কাছে পৌঁছুতে হবে। তাহলে আমাদের উদ্দেশ্যে সফল হবে। আমাদের হাসপাতালকে অতি শিগগিরই ডিজিটাইলেশন করবো। কার্ড দেবো  ও ডিজিটাল স্মার্ট সার্ভিস চালু করতে চাই। আগামী জানুয়ারি মাস থেকে চালু করার আশাবাদ ব্যক্ত করছি। আগামীতে বড় আয়োজনের মাধ্যমে মানুষকে জানাবো।

এদিকে আলোচনা সভা শেষে ডায়াবেটিক সমিতির ল্যাব টেকনিসিয়ান  অবসর গ্রহণের জন্য নির্মলেন্দু হালদারকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয় এবং বিদায়ী নির্মলেন্দুকে ৫০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More