চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ পার্কের ওপারে গড়ে তোলা হবে বিনোদন পার্ক 

মাথাভাঙ্গা নদীকে কেন্দ্র করে থাকবে খেলার মাঠ বাচ্চাদের জন্য রাইড ফুড কোর্ট 

স্টাফ রিপোর্টার: বিনোদনের কোনো জায়গা না থাকায় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম ভ‚ইয়া একটি পার্ক গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছেন। তারই আলোকে গতকাল বুধবার পুলিশ পার্কের মাথাভাঙ্গা নদীর ওপারে খাস জমি দখলমুক্ত করেন। পরে নদী পারাপারের জন্য সাময়িকভাবে বাঁশের তৈরি একটি সাঁকো নির্মাণ করা হয়। বিকেলে সাঁকো দিয়ে পারাপার হয়ে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম ভ‚ইয়া। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মাজহারুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা অফিসের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আইনাল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর ভ‚মি অফিসের ইনচার্জ আতিকুল ইসলাম, সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফ প্রমুখ। প্রশাসনের এ মহত উদ্যোগে উপস্থিত এলাকাবাসী তাদেরকে স্বাগত জানান। নদীর দু’ধারের অনেক নারী-পুরুষ এ সময় বাঁশের তৈরি সাঁকোই উঠে আনন্দে মেঠে ওঠেন।

অনুভ‚তি ব্যক্ত করতে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম ভ‚ইয়া বলেন, চুয়াডাঙ্গায় বসার মতো বা বিনোদনের জন্য বড় কোনো জায়গা নেই। ঐতিহ্যবাহী মাথাভাঙ্গা নদীকে কেন্দ্র করে আমরা একটি প্যাকেজ বিনোদন গড়ে তুলবো। সেই কারণে পুলিশ পার্কের ওপারে সরকারি খাস জমি দখলমুক্ত করেছি। প্রায় ২ একর জায়গার ওপর এখানেই গড়ে তোলা হবে বিনোদন পার্ক। এখানে থাকবে খেলার মাঠ, বাচ্চাদের জন্য রাইড, ফুড কোর্ট, লাইব্রেরি ও হাটার জন্য নির্মাণ করা হবে ওয়াকওয়ে। সেই কারণে নদী পারাপারের জন্য সাময়িকভাবে বাঁশের তৈরি সাঁকো নির্মাণ করা হয়েছে। পার্ক নির্মাণ শেষ হলে এখানে বেইলি ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। এর আগে জায়গাটি অবহেলায় ছিলো। ছেলে- মেয়ে ও নেশাখোরদের আড্ডাস্থলে পরিণত ছিলো। বিনোদন কেন্দ্রের মাধ্যমে এর অবসান ঘটবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More