দর্শনায় ফেনসিডিল ও প্রাইভেটকারসহ সেনেরহুদার জাহাঙ্গীর গ্রেফতার

দর্শনা অফিস: দর্শনা থানা পুলিশ পৌর এলাকার ফুড গোডাউনের নিকট মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়েছে। এ সময় ফেনসডিলি ও প্রাইভেটকারসহ জীবননগর উপজেলার সেনেরহুদা গ্রামের আবু জাফরের ছেলে জাহাঙ্গীর আলমকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পালিয়ে রক্ষা পেলেও মামলার তালিকা থেকে বাদ পড়েনি দর্শনা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিনের নাম। জাহাঙ্গীর ও নাজিমের বিরুদ্ধে থানায় দায়ের করা হয়েছে মামলা। জাহাঙ্গীরকে গতকাল সোমবার আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। জাহাঙ্গীর সাংবাদিকতার কোনোপ্রকার পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই রেজিস্ট্রেশন বিহীন ‘জয়নিউজ-৭’ নামের একটি ওয়েব পোর্টাল খুলে নিজেকে সম্পাদক বানিয়ে বিভিন্ন জায়গায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছিলেন।
জানাগেছে, চুয়াডাঙ্গা দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাব্বুর রহমানের নির্দেশে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই নিজাম উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে রোববার দিনগত রাত ১টার দিকে দর্শনা ফুড গোডাউনের সামনে মাদকবিরোধী অভিযান চালান। এ সময় একটি প্রাইভেটকারের (ঢাকা মেট্রো-গ-২০-১২৪৬) গতিরোধ করে পুলিশ। শাদা রঙের প্রাইভেটকার তল্লাশি করে কোমলপানির বোতলে রিপ্যাকিং করা ৩ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার করা হয় জাহাঙ্গীর আলমকে। গ্রেফতারের পর তাকে ছাড়াতে পুলিশের নিকট নানা তদবির শুরু হলে কোনো কিছুতেই মন গলে না পুলিশের। গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীর আলম জীবননগর উপজেলার উথলী ইউনিয়নের সেনেরহুদা গ্রামের ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি আবু জাফরের ছেলে। জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে রেজিস্ট্রেশনবিহীন ‘জয়নিউজ-৭’ নামের একটি ওয়েব পোর্টাল খুলে নিজেকে সম্পাদক বানিয়ে ব্যক্তিগত প্রাইভেটকারে প্রেসের স্টিকার লাগিয়ে অবৈধ কারবারের অভিযোগ রয়েছে। গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরপূর্বক মালামালসহ আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে দর্শনা থানার ওসি মাহাব্বুর রহমান কাজল বলেন, মাদকের সাথে জড়িত ব্যক্তি কোন পরিচয়ের সেটা পুলিশের বিবেচ্য বিষয় নয়। আর মাদকের ব্যাপারে সুপারিশ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।
পুলিশের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে, জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতারকালে কৌশলে পালিয়ে যান দর্শনা বাসস্ট্যান্ডের সুলতান ইসলামের ছেলে দর্শনা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে জাহাঙ্গীর জানান, তার কাছে থাকা ফেনসিডিল আড়াই হাজার টাকায় কেনা হয় নাজিমের কাছ থেকে। এ ঘটনায় এসআই সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে ওই রাতেই জাহাঙ্গীর ও নাজিমের বিরুদ্ধে দর্শনা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জানার জন্য নাজিম উদ্দিনকে একাধিকবার মোবাইলে কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More