দর্শনা পৌর নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা তারেক আহমেমদ

নির্বাচনে মিছিল-শোডাউন ও জনসভা করা যাবে না

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা তারেক আহমেমদ বলেছেন, নির্বাচনে মিছিল, শোডাউন ও জনসভা করা যাবে না। তবে, পথসভা করা যাবে। কিন্তু ২৪ ঘন্টা আগে পুলিশকে জানাতে হবে। নিয়ম না ভেঙে আচরণবিধি মেনে চলবেন । না মানলে প্রার্থীতা বাতিল করা হবে। নির্বাচনের মাঠে থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টায় জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে দর্শনা পৌর নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা তারেক আহমেমদ এসব কথা বলেন। এ সময় আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনীত মেয়র প্রার্থী মতিয়ার রহমান (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আশকার আলী (মোবাইল) প্রতীক পান। এছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩টি ওয়ার্ডে ৮জন এবং ৯টি সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে আম্বিয়া খাতুন (আনারস) ও বিলকিস খাতুন (চশমা), ২নং ওয়ার্ডে জাহানারা খাতুন (চশমা) ও শিউলী খাতুন (আনারস) এবং ৩নং ওয়ার্ডে মোছা: সুরাতন (আনারস), সেলিনা পারভীন (চশমা), ফাহিমা খাতুন (বলপেন) ও শাহিমা বেগম (জবাফুল) প্রতীক পান। সাধারণ কাউন্সিলর ১নং ওয়ার্ডে আনোয়ার হোসেন (গাজর), খালেকুজ্জামান খালেক (পানির বোতল), আজিজুর রহমান (ব্রিজ) ও নাসির উদ্দিন (উটপাখি)। ২নং ওয়ার্ডে আব্দুল কুদ্দুস (টেবিলল্যাম্প), এনামুল কবির (পাঞ্জাবী) ও সোহেল রানা (মহিউদ্দিন) (উটপাখি)। ৩নং ওয়ার্ডে আনোয়ারুল ইসলাম  (টেবিলল্যাম্প), রবিউল হক সুমন (উটপাখি) ও শহিদুল ইসলাম (ব্লাকবোর্ড)। ৪নং ওয়ার্ডে সোহেল মিয়া (টেবিলল্যাম্প), আব্দুর রাজ্জাক (উটপাখি), মনির সরদার (ব্রিজ), হাবিবুল্লাহ বাহার (ব্লাকবোর্ড) ও রফিকুল ইসলাম (পাঞ্জাবী)। ৫নং ওয়ার্ডে নজরুল ইসলাম (পাঞ্জাবী), রাজিবুল ইসলাম (উটপাখি), লাল্টু খান (ব্রিজ), লুৎফর রহমান (পানির বোতল), আব্দুল মিয়া (টেবিল ল্যাম্প) ও সাইফুল ইসলাম (ডালিম)। ৬নং ওয়ার্ডে হারুন অর রশীদ (উটপাখি), রেজাউল ইসলাম (পানির বোতল) ও কামরুল হক (টেবিল ল্যাম্প)। ৭নং ওয়ার্ডে আয়নাল হক (পানির বোতল), কানচু মাতবর (উটপাখি), মোস্তাফিজুর রহমান (ডালিম) ও সাব্বির হোসেন মিকা (পাঞ্জাবী)। ৮নং ওয়ার্ডে চান্দু মাস্টার (পানির বোতল), বাবুল আক্তার (ডালিম), শরীফ উদ্দিন (টেবিল ল্যাম্প), বিল্লাল হোসেন (উটপাখি)ও নাসির উদ্দিন (পাঞ্জাবী)। ৯নং ওয়ার্ডে বাবলুর রহমান (পাঞ্জাবী), আশুর উদ্দিন (উটপাখি), আজিজুল হক (ডালিম), সাইদুর রহমান (পানির বোতল), মঈন উদ্দীন (গাজর) ও জাহাঙ্গীর আলম (টেবিল ল্যাম্প)। আগামী ৩০ জানুয়ারি শনিবার দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্যালটে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দর্শনা পৌরসভা নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৫২০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৫৭২ জন এবং মহিলা ভোটার ১৩ হাজার ৯৪৮ জন। পুরুষের চেয়ে মহিলা ভোটারের সংখ্যা ৩৭৬ জন বেশি। মোট ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৬টি, ভোটকক্ষের সংখ্যা ৮২টি, কোন অস্থায়ী ভোট কেন্দ্রে নেই এবং অস্থায়ী ভোটকক্ষের সংখ্যা ৭টি। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা তারেক আহমেমদ  আরও বলেন‘ নির্বাচনে প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মাইকিং প্রচারণা করা যাবে। তবে প্রার্থীরা ২৪ ঘন্টা প্রচারণা করতে পারবেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে ১টি মাইক ব্যবহার করতে পারবেন কাউন্সিলর প্রার্থীরা। সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী ও মেয়র প্রার্থীরা প্রতিটি ওয়ার্ডে ১টি করে মাইক ব্যবহার করতে পারবেন। নির্বাচনে উপঢৌকন ও আর্থিক লেনদেন করা যাবে না। ব্যানারের সাইজ ৬০ থেকে ৪৫ সেন্টিমিটার সাদাকালো হতে হবে এবং পোস্টার ঝুলাতে হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More