দামুড়হুদায় করোনা নমুনা সংগ্রহ বুথ অক্সিজেন প্লান্ট ও ডেন্টাল ইউনিট উদ্বোধনকালে এমপি টগর

এখন থেকে গ্রামের মানুষ বাড়ি বসেই চিকিৎসা নিতে পারবেন

দামুড়হুদা ব্যুরো: দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স করোনার নমুনা সংগ্রহ বুথ, হাই-ফ্লো অক্সিজেন প্লান্ট ও ডেন্টাল ইউনিটের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। তিনি হাসপাতালের সার্বিক বিষয়ে খোঁজখবর নেন। তিনি বলেন, এখন থেকে গ্রামের সাধারণ মানুষ বাড়ি বসেই প্রয়োজনীয় সুচিকিৎসা পাবে। বাড়ি বসেই পেসার ও ব্লাড সুগার মাপতে পারবেন। তাদের আর তড়িঘড়ি করে শহরে যেতে হবে না। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মনজু, দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু, দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আব্দুল খালেক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা খাতুন, দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফারহানা ওয়াহিদ তানিয়া, ডেন্টাল সার্জন ডা. ওয়ালিদ, মেডিকেল অফিসার ডা. মকবুল হোসেন, ডা. ইমরান হুসাইন, ডা. তানভীর মোহাম্মদ আসিফ মজতুবা, দামুড়হুদা উপজেলা প্রকৌশলী মাহবুব-উল-হক, উপ-সহকারী প্রকৌশলী খালিদ হোসেন, নতিপোতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোমিনুল হক, সেনেটারি ইন্সপেক্টর জামাত আলী, উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক আবুল কাশেম, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজু আহম্মেদ রিংকুসহ ইউনিয়ন উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে আগত সেকমো ও কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারবৃন্দ। দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ এমপি আলী আজগার ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবুর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, দামুড়হুদা উপজেলায় স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন এমপি আলী আজগার টগর। আর ওই সমস্ত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তারই সহোদর দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু। তিনি আরও বলেন, আগে অনেক কিছুই ছিলো না। এখন কি নেই চিৎলা হাসপাতালে? বর্তমানে নতুন অ্যাম্বুলেন্স, আল্ট্রাসনো মেশিন, সুসজ্জিত আধুনিক অপারেশন থিয়েটার, নতুন এক্স-রে মেশিন, আইডিয়াল ডাইনিং রুম, সাইকলেস্ট্যান্ড, সিসিটিভি, কনফারেন্স রুম, রোগীদের বসার জন্য ওয়েটিং চেয়ার সবকিছুই আছে। এছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার, নার্স থেকে শুরু করে কোনো কিছুরই আর ঘাটতি নেই। হাসপাতালের নতুন ভবনের ২য় তলায় বসানো হয়েছে আধুনিক ডেন্টাল মেশিন। দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু সম্প্রতি উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ২৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক ও ৭টি সাব-সেন্টারে ব্লাড সুগার মাপার জন্য গ্লুকো মিটার এবং নেবুলাইজার মেশিন জাইকার অর্থায়নে নতুন এক্স-রে মেশিন প্রদান করেছেন। এতে প্রত্যন্ত অঞ্চলের রোগীদের শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে এখন থেকে তাদের আর তড়িঘড়ি করে শহরে আসা লাগবে না। বাড়ি বসেই মাপতে পারবেন ব্লাড সুগার। এছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে কুকুর ও সাপে কামড়ানো রোগীদের প্রতিষেধক ভ্যাকসিন। তিনি এলাকার কৃতিসন্তান জেলা বিএনপির অন্যতম নেতা বিঅ্যান্ডটি গ্রুপের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিল্পপতি ইঞ্জিনিয়ার মোখলেছুর রহমান টিপু তরফদারের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেছেন, করোনায় আক্রান্ত রোগীদের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা হচ্ছে অক্সিজেন। তিনি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে সেই অক্সিজেন প্লান্ট করে দিয়েছেন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবনের ৪র্থ তলায় প্রস্তুত করা হয়েছে পাইপ লাইন সিসেস্ট অক্সিজেন ইউনিট। রয়েছে ১০টি সুসজ্জিত বেড় এবং ২টি ভিআইপি কেবিন। নিচতলায় রাখা হয়েছে ৮টি অক্সিজেন সিলিন্ডার। যা করোনা রোগীদের জন্য একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এছাড়া শীতকালেও এলাকার অ্যাজমা এবং হাপানি রোগীদের জন্যেও এটি বড় ধরণের সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More