দৌলাতদিয়াড়ের ৩জন বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ ৭ শরিকের জমি একজন জোর করে দখলে নেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা শহরতলি দৌলাতদিয়াড় কোরিয়াপাড়াস্থ অনন্য মুড়ি ফ্যাক্টরির নিকটস্থ শরিকি জমি নিয়ে উত্তেজনা দানা বেধেছে। সরদারপাড়ার মরহুম আয়ুবুর রহমান সরদার ওরফে পটল সরদারের ৭ ছেলে এক মেয়ের মধ্যে বড় ছেলের দ্বিতীয় স্ত্রীর পুত্র জবরদখলের মেতে ওঠার কারণে এ উত্তেজনা বলে স্থানীয় একাধিকসূত্র জানিয়েছে।
অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, আয়ুবুর রহমান সরদার ১৯৭৪ সালে মৃতুবরণ করেন। তিনি আনুমানিক ৬০/৭০ বিঘা জমি রেখে গেছেন। ৭ ছেলে ১ মেয়ের ওয়ারেশসূত্র ফারাজ মোতাবেক এ জমির মালিকানা লাভ করে। মৃত আয়ুবুর রহমানের ৩ ছেলে যথাক্রমে মৃত মতিয়ার রহমান বাবু, মৃত ওয়ালিউর রহমান ও মো. মিজানুর রহমান শেফা বীর মুক্তিযোদ্ধা। এদের বড় ভাই খলিলুর রহমানের বয়স ৮৫ বছর। তিনি অনেকটা শয্যাগত। সুস্থ থাকাবস্থায় খলিলুর রহমানের সাথেও তার ভাই বোনদের সাথে সুন্দর সম্পর্ক ছিলো। খলিলুর রহমানের দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে সৈকত আহমেদ তার চাচা ও ফুফুর স্বত্বদখলীয় দৌলাতদিয়াড় কোরিয়াপাড়ার অনন্য বিস্কুট ফ্যাক্টরির নিকটস্থ জমি জোর করে দখলের পাঁয়তারা করছে। জমি নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি করতে বারণ করার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে সে তার পিতাকেও অসুস্থ করে রেখেছে বলে শোনা যাচ্ছে। অভিযোগকারী চাচারাসহ ফুফু প্রতিকার চেয়ে পুলিশ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেছেন, অবৈধভাবে জমি জোর করে দখল নেয়ার পাঁয়তারা না করার জন্য বলতে গেলে সে উগ্র আচরণই শুধু করছে না, সে তার ভাড়াটে লোকজন নিয়ে মারমুখি হয়ে উঠছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More