দ্রুত দাবি পূরণ না হলে মৈত্রী ট্রেন অবরুদ্ধসহ কঠোর আন্দোলনে মাঠে নামবো

দর্শনা সীমান্তে বাংলাদেশিদের ভিসা চালুর দাবিতে বিক্ষোভ গণজমায়েতে বক্তারা

দর্শনা অফিস: দীর্ঘ আড়াই বছর দর্শনা জয়নগর সীমান্ত পথে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের ভিসা বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চুয়াডাঙ্গাসহ ২৫ জেলার মানুষকে। দর্শনা-গেদে স্থলপথে পুনরায় ভ্রমণসহ সব ধরণের ভিসা চালু করণের দাবিতে দর্শনা নাগরিক কমিটির পক্ষ থেকে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে গত ৫ অক্টোবর। ওইদিন সন্ধ্যায় দর্শনার সুধী সমাজের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে আন্দোলনের ডাক দেয়া হয়। আন্দোলন কর্মসূচির অংশ হিসেবে ১০ অক্টোবর দর্শনা প্রেসক্লাবের সামনে করা হয় মানববন্ধন। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে দর্শনা আন্তর্জাতিক স্টেশনের পেছনে গণজমায়েত করেছে দর্শনার সবধরণের সামাজিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের মানুষ। এ সময় বক্তারা বলেন, দীর্ঘ আড়াই বছর ধরে ভারত সরকার খাম-খেয়ালি করে এ রুটে ভিসা বন্ধ রেখেছে। নিজের দেশের যাত্রীরা বাংলাদেশে প্রবেশের সুযোগ পেলেও আমাদের ক্ষেত্রে এ বৈষম্যের হেতু কি? অতি সত্বর দর্শনা জয়নগর সীমান্ত সড়কে বাংলাদেশিদের জন্য ভ্রমণসহ সব ধরণের ভিসা চালু করতে হবে। দ্রুত চালু করা না হলে আমরা শুধু দর্শনায় নয় প্রয়োজনে গোটা দেশে আন্দোলন ছড়িয়ে দেবো। বাধ্য হবো দর্শনা আন্তর্জাতিক স্টেশনে মৈত্রী ট্রেন অবরুদ্ধ করতে। দরকার হলে দর্শনা জয়নগর চেকপোস্টের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হবে। আমরা যখন মাঠে নেমেছি, তখন দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলনের মাঠ ছাড়বো না। দর্শনা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক আরিফের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত এ গণজমায়েতে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী। বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল ইসলাম আজাদ, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাফুজুর রহমান মনজু, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু, বাংলাদেশ জাসদের কেন্দ্রীয় নেতা আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, জীবননগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল, জীবননগর প্রেসক্লাবের সভাপতি এমআর বাবু, দর্শনা  সিএ্যান্ডএফ ব্যবসায়ী আতিয়ার রহমান হাবু, দর্শনা গণউন্নয়ন গন্থ্গাারের পরিচালক আবু সুফিয়ান, আ.লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম, বিল্লাল হোসেন, যুবলীগ নেতা আব্দুস সালাম ভুট্ট, সাংবাদিক মাহফুজ উদ্দিন খান, দর্শনা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মনিরুজ্জামান ধীরু, দর্শনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম ওসমান, সাবেক সভাপতি হানিফ ম-ল, ইকরামুল হক পিপুল, সাংবাদিক সালাউদ্দীন কাজল, আফজাজুল হক ধীরু, রেজাউল করিম লিটন, তরুণ সমাজসেবক আরিফ তরফদার, শিক্ষক স্বরুপ দাস, হারুনুর রশিদ, জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার কুন্ডু। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দর্শনা প্রেসক্লাবের সভাপতি আওয়াল হোসেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More