প্রতিটি শিশুর কাছে মীনা শক্তি সাহস ও প্রেরণার প্রতীক

স্টাফ রিপোর্টার: ‘নিরাপদ ও আনন্দময় পরিবেশে মানসম্মত শিক্ষা’ এ প্রতিপাদ্যে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও যথাযোগ্য মর্যাদায় মিনা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে র‌্যালি, আলোচনাসভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা শেষে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, প্রতিটি শিশুর কাছে মীনা শক্তি, সাহস ও প্রেরণার প্রতীক। যেসব বাধা-বিপত্তি ও প্রতিকূলতাকে পেছনে ফেলে শিক্ষার আলোর পথে ছুটে চলে। কারণ শিক্ষাই তাকে দেবে কাক্সিক্ষত মুক্তি, পূরণ করবে অগণিত স্বপ্ন। আর শিক্ষার আলোয় প্রতিগৃহ রাঙাতে কাজ করছে সরকার। বক্তারা আরও বলেন, মানবসম্পদ উন্নয়নের প্রধানতম হাতিয়ার শিক্ষা। শিশুদের জন্য আলোকিত আগামী নির্মাণ করতে মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই। তাই মানসম্মত শিক্ষা দেয়ার মাধ্যমে জাতির ভিত গড়ার কাজ করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। তিনি সবাইকে এ উদ্যোগে সামিল হবার আহ্বান জানান।
চুয়াডাঙ্গায় মিনা দিবস উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় সদর উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ শেষে রিজিয়া খাতুন প্রভাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। সেখানে মুক্তমঞ্চে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও উপজেলা শিক্ষা অফিস যৌথভাবে আলোচনাসভার আয়োজন করে। ‘নিরাপদ ও আনন্দময় পরিবেশে মানসম্মত শিক্ষা’ শীর্ষক আলোচনাসভায় সভপতিত্ব করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শারমিন আক্তার। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদী মিলি, উপজেলা শিক্ষা অফিসার উত্তম কুমার কু-ু রিজিয়া খাতুন প্রভাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শাহজাহান আলী ও জেলার শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক নাজমুল হোসেন। পরে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কমলমতি প্রাথমিক শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মিনা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল শনিবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে র‌্যালি ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) লিংকন বিশ্বাসের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিএম মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে থেকে শুরু করে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। এ সময় শিশুদের অধিকার এবং শিক্ষা সুযোগ ও পরিবেশ নিয়ে বিভিন্ন সেøাগান সম্বলিত প্লাকার্ড তাদের হাতে ছিলো। র‌্যালিতে অন্যদের মধ্যে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম, আতাউর রহমান, সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আপিল উদ্দিনসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় মেহেরপুরের শিক্ষাবিদ বঙ্গবন্ধু শিক্ষা গবেষণা পরিষদের সভাপতি প্রফেসর হাসানুজ্জামান মালেক, কথা সাহিত্যিক শ্বাশত্ব নিপ্পন উপস্থিত ছিলেন। সেখানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) লিংকন বিশ্বাসসহ উপস্থিত অতিথিরা শিশুদের উদ্দেশ্যে অনুপ্রেরণামূলক বিভিন্ন গল্প শোনান।
মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগরে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে মীনা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে র‌্যালি আলোচনাসভা ও শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুরুতেই গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় মুজিবনগর শিক্ষা অফিসের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ থেকে একটি র‌্যালি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষ উপজেলা অডিটরিয়াম হলরুমে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দীনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতি. দা.) ওবাইদুল্লাহ। উপস্থিত ছিলেন সহকারী শিক্ষা অফিসার এহসানুল হাবীব, সহকারী শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দীনসহ উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও ছাত্র- ছাত্রীরা। আলোচনাসভা ও শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মুজিবনগর উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন প্রধান শিক্ষক শিরিনা খাতুন। অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
মহেশপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মহেশপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসের আয়োজনে মিনা দিবস উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি আলোচনাসভা ও গল্প বলার আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা চত্বর থেকে একটি আনন্দ র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে যথা স্থানে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নয়ন কুমার রাজবংশীর সভাপতিত্বে উপজেলা সম্মেলন কক্ষে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামীদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আবু হাসান, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আফজালুর রহমান, মহেশপুর সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহুরুল ইসলাম। এছাড়া অনুষ্ঠানে উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনাসভা শেষে শিশুদের অংশগ্রহণে গল্প বলার আসর, কবিতা আবৃত্তিসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More