প্রেমিকাকে ভারতে দিলো বিজিবি, প্রেমিককে থানায়

প্রেমের সীমান্ত পেরিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক ভারতীয় তরুণীকে ফেরত দিয়েছে বিজিবি। শুক্রবার পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে প্রিয়া কর্মকারকে (১৯) ভারতের সীমা্ন্ত রক্ষী বিএসএফ’র হাতে তুরে দেয়া হয়। এ ঘটনায় আটক তার প্রেমিক সৌরভসহ সাত বাংলাদেশি নাগরিককে চৌগাছা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
শুক্রবার রাতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন ৪৯ বিজিবি যশোরের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর আবুল হাসান মো. তৌফিক মাহমুদ।
আটককৃতরা হলেন- যশোরের শার্শা উপজেলার কানাইনগর গ্রামের শংকর সরকারের ছেলে সৌরভ সরকার (২৫), একই গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে আরিফ হোসেন (২২), ঝিকরগাছার কৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রামের হাসেম আলীর ছেলে সুজন (২০), রফিকুল ইসলামের ছেলে জালাল উদ্দীন (১৮), একই গ্রামের নোমান হোসেন (২৭), তাদের বহনকারী ইজিবাইকচালক একরামুল (২০), চৌগাছার গদাধারপুর গ্রামের মৃত আজম আলীর ছেলে আশ্রয়দাতা আখের আলী (৫৫)।
স্থানীয় সূত্র জানায়, ভারতীয় নাগরিক প্রিয়া কর্মকারকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে দেশে ফেরত পাঠানো হলেও তার প্রেমিক বাংলাদেশি নাগরিক সৌরভ সরকারকে (২৫) থানায় সোপর্দ করেছে বিজিবি। প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরেই ওই তরুণী সীমান্ত পার হয়েছিলেন।
বিজিবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে চৌগাছা সীমান্তের হিজলী বিওপির টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভারতীয় নাগরিকসহ পাচারকারী দলের সদস্যদের আটক করে। ভারতীয় নাগরিক প্রিয়া কর্মকার (১৯) উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁও থানার টেংরাইল গ্রামের বাসিন্দা। পরবর্তীতে শুক্রবার বিকালে অবৈধভাবে আগমনকারী ভারতীয় নাগরিককে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ১০৭ বিএসএফের উত্তর বয়রা কোম্পানি সদরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। একই সঙ্গে অবৈধ অনুপ্রবেশে সহায়তাকারী বাংলাদেশি নাগরিকদের চৌগাছা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অবৈধপথে ভারতে প্রবেশের চেষ্টার অভিযোগে পাসপোর্ট আইনে মামলা করেছে বিজিবি। শনিবার তাদের যশোর আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More