বাবার প্রার্থিতা বাতিল শুনে হাসপাতালে ভর্তি ২ মেয়ে

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিলের খবরে তার দুই মেয়ে স্বপ্না ও রতœা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। পরে তাদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় আব্দুল খালেকের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. লিমন পারভেজ নিশ্চিত করে জানান, রাত ৮টার দিকে আব্দুল খালেকের দুই মেয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। মানসিক চাপের কারণেই তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এখন তাদের শারীরিক অবস্থা স্থিতাবস্থায় আছে।

এর আগে গত ১ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জেলা শহরের ধুপাঘাটা নতুন ব্রিজ এলাকায় ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে। এতে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদী হিজল ও তার বড় ভাই পিপুলসহ অন্তত ৭ জন আহত হয়।

তাদের মধ্যে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ও তার বড় ভাইসহ তিনজনের অবস্থা গুরুতর। ওইদিন তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। তারা দুজনেই একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে নির্বাচনে সংঘর্ষের ঘটনায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গত বৃহস্পতিবার ইসি সচিবালয়ের উপসচিব (নির্বাচন প্রশাসন) মো. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এই খবর প্রচারের পরপরই আব্দুল খালেকের পরিবারের সদস্যদের মাঝে হতাশার সৃষ্টি হয়। গতকাল শুক্রবার ঝিনাইদহ-মাগুরা সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম যুব মহিলা লীগ নেত্রী বুলবুলি খাতুনসহ নেতাকর্মীদের নিয়ে স্বপ্না ও রতœাকে দেখতে হাসপাতালে যান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More