বিনম্র শ্রদ্ধা ও হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারাদেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালী জাতি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে পালন করেছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস। এবারের জাতীয় শোক দিবসে পলাতক খুনীদের ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকরের পাশাপাশি কমিশন গঠন করে বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের নেপথ্যের মূল কুশীলবদের খুঁজে বের করে মুখোশ উন্মোচন করে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি উঠেছে সর্বত্র। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে দলীয় কর্মসূচি সীমিত আকারে পালন করার কথা থাকলেও বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা হাজার হাজার মানুষের উপচেপড়া ভিড় দেখা যায়। বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে এবার সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও স্বাস্থ্যবিধি অনুস্মরণ করে শোক দিবসের প্রতিটি কর্মসূচি পালিত হয়। শোকার্ত মানুষের বিন¤্র শ্রদ্ধা ও হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসার পাশাপাশি ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত হন ইতিহাসের মহামানব, বাংলাদেশের মহান স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারাদেশে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতির পিতার ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করে। শোক দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী কোরআন তেলাওয়াত, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, কালো ব্যাজ ধারণ, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, শোকর‌্যালি, মিলাদ মাহফিল, রক্তদান কর্মসূচি, আলোচনাসভা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী এবং দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

এছাড়াও রাজধানী ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে এবং টুঙ্গিপাড়ার মাজারে দিনভর স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন জাতির পিতাকে। যার দীর্ঘ সংগ্রাম, আত্মত্যাগ ও নেতৃত্বে আমরা পেয়েছি মহার্ঘ্য স্বাধীনতা, স্বাধীন-সার্বভৌম মানচিত্র ও পতাকা। হৃদয়ের গভীরতা থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পাশাপাশি খুনী মীরজাফর-বেঈমানদের প্রতি ঘৃণা-ধিক্কারের মাত্রাও ছিলো প্রচ-।

চুয়াডাঙ্গায় গভীর শ্রদ্ধায় জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। কোভিড-১৯’র সংক্রমনরোধে এবার স্বল্প পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালিত হয়েছে দিনটি। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৬টায় জেলা আ.লীগ কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে অর্ধনমিত রাখা হয়। উত্তোলন করা হয় কালো পতাকা। পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জেলা আ.লীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনসহ আ.লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন আহামেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, মাসুদুজ্জামান লিটু, কোষাধ্যক্ষ আলী রেজা সজল, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু তালেব বিশ্বাস, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এ নাসির জোয়ার্দ্দার, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালিম হোসেন, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরশাদ উদ্দিন আহামদে চন্দন, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট বেলাল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা বিএম’র সভাপতি ডা. মার্টিন হীরক চৌধুরী, চুয়াডাঙ্গা পৌর আ.লীগের সভাপতি জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল কাদের, আব্দুর রশিদ, রেজাউল করিম, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জি.এস রাসেদুজ্জামান বাকি, জাতীয় শ্রমিকলীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রিপন ম-ল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম কেতু, চুয়াডাঙ্গা জেলা বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সভাপতি সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গরীব রুহানী মাসুম, খুলনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদমান নাইহান সেজান, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, সহ-সভাপতি শাহাবুল হোসেন প্রমুখ।

চুয়াডাঙ্গা জেলা জজশীপ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসী আদালতসমূহে জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে। যথাযথ মর্যাদায় ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত এবং স্ব্যাস্থবিধি অনুস্মরণ করে গতকাল সকাল ১০টায় জেলা জজশীপ মিলানায়তনে ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আলোচনা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। দোয়া অনুষ্ঠানে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নৃশংসভাবে নিহত জাতির পিতাবঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবসহ তাদের পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়। এছাড়া দুপুর ২টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের শারমিন হক হাফিজিয়া ও কওমী মাদরাসা লিল্লাহ বোর্ডিং ও এতিমখানার অসহায় ও দুস্থ শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন জেলা ও দায়রা জজ মোহা. রবিউল ইসলাম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালের বিচারক মুসরাত জেরিন, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (১ম আদালত) বজলুর রহমান, জেলা ও দায়রা জজ (২য় আদালত) মোহা. কামাল হোসেন শিকদার, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ নীলা কর্মকার, সিনিয়র সহকারী জজ মো. ছানাউল্লাহ, সিনিয়র সহকারী জজ (লিগ্যাল এইড) শামসুজ্জামান, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদালত মো. সাজেদুর রহমান, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালত মানিক দাস, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদালত পাপিয়া নাগ, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালত ফারিহা নোশীন বর্ণী, সহকারী জজ মো. আরমান হোসেন, মোছা: নীলা খাতুন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুর রশীদ, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নাজির মো. ওসমান গনি ও জেলা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত নাজির মাসুদুজ্জামান প্রমুখ।

এদিকে, সকাল ৭টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসনের পক্ষে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার, জেলা পুলিশের পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, জেলা আ.লীগের পক্ষে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দার টোটন। এছাড়া বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন ইউনিটের সেক্রেটারি শহিদুল ইসলাম শাহান, কার্যনির্বাহী সদস্য রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, অ্যাড. আকসিজুল ইসলাম রতন, অ্যাড. রফিকুল ইসলাম, খলিলুর রহমান, আসাদুজ্জামান কবীর, ইউনিট অফিসার গৌর চন্দ্র বিশ্বাস ও যুব রেডক্রিসেন্ট সদস্যরা। চুয়াডাঙ্গা ডায়াবেটিক সমিতির পক্ষ থেকে সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুজ্জোহা, যুগ্ম সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহান, কোষাধ্যক্ষ অ্যাড. আকসিজুল ইসলাম রতন ও অ্যাড. রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা আয়কর আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুজ্জোহা, কার্যকরী সভাপতি অ্যাড. আকসিজুল ইসলাম রতন ও কার্যকরী সদস্য অ্যাড. রফিকুল ইসলামসহ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষে সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আবুল বাশারসহ আইনজীবী সমিতির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের পক্ষ থেকে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আজিজুর রহমান, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর রেজাউল করিম, ড. আব্দুর রশিদ, মাসুদ পারভেজ, এনামুল হক, জান্নাতুল ফেরদৌস ও মো. মাসুদসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক রাজীব হাসান কচি, সিনিয়র সাংবাদিক শেখ সেলিম, বিপুল আশরাফ ও  সোহেল সজিবসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের পক্ষ থেকে সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফসহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। জেলা যুবলীগ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডসহ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও আ.লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়াও সকাল ৬টায় চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা মোড়ে অবস্থিত যুবলীগের অফিসে জাতীয় সঙ্গীতের তালে তালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও  তার পরিবারের সদস্য প্রকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কীর্তির ওপর ভার্চুয়াল আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনাসভায় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ সরকারি বেসরকারি দফতরের কর্মকর্তাবৃন্দ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব অংশ নেন। পরে শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে দেশাত্মকবোধক গান পরিবেশন করেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা।   চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সকাল সাড়ে ৭টায় অফিস প্রাঙ্গণে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। এছাড়াও দোয়া এবং বাদ জোহর ওয়াক্তিয়ার মসজিদে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে সিভিল সার্জনের আয়োজনে সদর হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন ডা. এসএম মারুফ হাসান, বিএমএর সভাপতি ডা. মার্টিন হিরক চৌধুরী, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শামীম কবির, সিনিয়র সার্জন কনসালটেন্ট ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন, সিনিয়র কনসালটেন্ট গাইনি ডা. আকলিমা খাতুন, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আরমান শেখ, নার্সিং সুপার ভাইজার ফেরদৌস আরা রোকেয়া প্রমুখ।

সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে পুষ্পমাল্য অর্পণকালে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (অ.দা.) এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জাহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য শহিদুল ইসলাম শাহান, খলিলুর রহমান, জহুরুল ইসলাম ও মাহবুবুর রহমান মোল্লা, উপ-সহকারী প্রকৌশলী রোকনুজ্জামান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা রমজান আলী, হিসাবরক্ষক আসলাম উদ্দিন এবং জালাল উদ্দিনসহ জেলা কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, বাদ জোহর জেলা পরিষদ মসজিদে জাতীয় শোক দিবস ও  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে সাবেক পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন বঙ্গবন্ধুর জীবনী ও স্বাধীনতা সংগ্রামের ওপর আলোচনা করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে জেলা পরিষদ সদস্য শহিদুল ইসলাম শাহান, খলিলুর রহমান, জহুরুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান মোল্লা, সিরাজুল ইসলাম ও শফিকুল আলম নান্নু , উপ-সহকারী প্রকৌশলী রোকনুজ্জামান,  প্রশাসনিক কর্মকর্তা রমজান আলী, হিসাবরক্ষক আসলাম উদ্দিন এবং জালাল উদ্দিনসহ জেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা পরিষদ মসজিদের ইমাম বায়েজিদ হুসাইন দোয়া পরিচালনা করেন।

অপরদিকে, চুয়াডাঙ্গা কেদারগঞ্জস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয়, দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান ও পুষ্পস্তবক অর্পন ও চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ৬ টার সময় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আশাদুল হক বিশ্বাস, চুয়াডাঙ্গা সদর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি রেজাউল করিম খোকন। জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম সম্পাদক দীপন, সদর উপজেলার আহ্বায়ক আব্দুল মতিন দুদু, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাছুমা আক্তার, সদর থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমরান আহমেদ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ইমদাদুল হক সজল, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমরান শেখ, রাজীব, ছাত্রলীগ নেতা ফারহান রাব্বি, আরিফিন সজীব, ইসতিয়াক সিথুন, সুরুজ আহমেদ, রাইসুল, ইমন, নাজমুল প্রমুখ। বিকেলে কেদারগঞ্জের দলীয় কার্যালয়ে এ উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপুর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি অ্যাড আশরাফ আলী, সাবেক যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড শফিকুল ইসলাম শফি, আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার উদ্দিন, তৈয়ব মন্ডল, তরফদার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মতিয়ার রহমান মতি, সদস্য মাহাবুল ইসলাম সেলিম, মাফিজুর রহমান মাফি, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন জ্যাকি প্রমুখ।

চুয়াডাঙ্গায় তারা দেবী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কর্মসূচির শুরুতে সংগঠনের কার্যালয়ের সামনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়। সকাল সাড়ে ৭টায় তারা দেবী ফাউন্ডেশনের একটি সু-শৃঙ্খল টিম শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে র‌্যালিসহ চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক দিয়ে বিন¤্র শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে। দুপুর ১২ টায় তারা দেবী ফাউন্ডেশনের সম্মেলন কক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী ও কর্মজীবন নিয়ে আলোচনা ও উপস্থিত বক্তৃতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি সরদার আল আমিন, সাধারণ সম্পাদক রাজীব হাসান কচি ও প্রবীণ হিতৈশী সংঘের সেক্রেটারি লুৎফর রহমান। তারা দেবী ফাউন্ডেশনের প্রকল্প পরিচালক নুর মোহাম্মাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন ডা. আফসার উদ্দিন কলেজের অধ্যক্ষ মাহবুবুল ইসলাম সেলিম, কৃষকলীগের নেত্রী ঝর্না ইসলাম, তারা দেবী স্পোর্টস একাডেমীর সমন্বয়কারী মিলন বিশ্বাস ও জেলা দোকান মালিক সমিতির নেতা মাফিজুর রহমান মাফি। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন তারা দেবী ফাউন্ডেশনের নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর কবীর শিপলু।

অপরদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের উপ-পরিচালক আব্দুল আওয়ালের নেতৃত্বে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃর্তিতে পুষ্পমাল্য অর্পন শেষে মহিলা বিষয়ক অধিফতরের প্রশিক্ষণরুমে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ। এছাড়াও বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার উদ্যোগে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃর্তিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রিসোর নির্বাহী পরিচালক জাহিদুল ইসলাম, পাস’র নির্বাহী পরিচালক ইলিয়াস হোসেন, গ্রামীন সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাইদুর রহমান, আলাপের নির্বাহী পরিচালক আশফাকুর রহমান ও ওয়ার্পের নির্বাহী পরিচালক আবেদ-উদ দৌলা।

চুয়াডাঙ্গা পৌর ডিগ্রি কলেজের উদ্যোগে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোয়া ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তাহেরুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন আতিয়ার রহমান, খসরুজ্জামান, হাসিবুল ইসলাম। দোয়া পরিচালনা করেন কামরুজ্জামান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শিহাব রানা। আলোচনাসভার আগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

গোকুলখালী ডা. আফছার উদ্দিন কলেজে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলেজ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যক্ষ মাহবুবুল ইসলাম সেলিম। প্রভাষক মনিরুল ইসলাম কোরাআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজের সভাপতি জিল্লুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন অভিভাবক সদস্য অ্যাড. তসলিম উদ্দিন ফিরোজ, ফরিদ হোসেন, মোশাররফ হোসেন। দোয়া করেন প্রভাষক মো. আবু সালেহ ও অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন প্রভাষক মো. কুদরাত-ই- খুদা।

চুয়াডাঙ্গা রেলবাজার ফাজিল মাদরাসায় বঙ্গবন্ধুসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদ সকল সদস্যের রুহের মাগফেরাত কামনা করে আলোচনাসভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি জেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন। সভাপতিত্ব করেন অধ্যক্ষ মীর জান্নাত আলী।

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। উপস্থিত ছিলেন শঙ্করচন্দ্র ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান শওকত মাহামুদ, ইউপি সচিব ফয়জুর রহমান, সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন, উদীচীর সভাপতি ডা. আব্দুল হান্নান, আব্দুস ছাত্তার, সমাজসেবক তাহাজ উদ্দিন। এছাড়াও বিকেল ৫টার দিকে শেখ মুজিবুর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। শঙ্করচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্যানেল চেয়ারম্যান শওকত মাহাম্মুদ, ইউপি সদস্য রোজিনা, রাশিদা, আলোমতি, জিল্লুর রহমান প্রমুখ। শেষে দোয়া পরিচালনা করেন মাও. সাইফুল ইসলাম হেলালী। অপরদিকে মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোখলেসুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন শঙ্করচন্দ্র ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য আব্দুল হান্নানসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মচারী ও এলাকার অভিভাবকগণ।

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, সরোজগঞ্জ তেতুল শেখ কলেজে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাজি আব্দুল্লা শেখ। উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা কমিটির সদস্য জালাল উদ্দিন মহর, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম কিবরিয়া, সরোজগঞ্জ ক্যাম্পের এএসআই সাইদুর রহমান, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হাফিজুর রহমান মোস্তফা শওকত ইমরান, তাছলিমা পারভীন প্রমুখ। ছাদেমান নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য জালাল উদ্দিন মহরের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠাতা হাজি আব্দুল্লা শেখ, শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, সাইফুল আওয়াল প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন মুনতাজুল ইসলাম স্বাধীন। মহাম্মদজমা ডিএএসএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজি মজিবর রহমান, প্রধান শিক্ষক নাজমুল ইসলাম প্রমুখ। বদরগঞ্জ আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন, নজরুল ইসলাম, পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজি আব্দুল মোতালেব, বাজার কমিটির সভাপতি এএনএম আশিফ প্রমুভ। এছাড়া কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে বদরগঞ্জ জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আক্তার হোসেন রনি, কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মাসুম রানা, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। পদ্মবিলা ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে সুবদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

অপরদিকে, কুতুবপুব ইউনিয়ন আ.লীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে গতকাল শনিবার সকালে ইউনিয়নের বিভিন্ন বাজারে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়েছে। উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহম্মদ হাসানুজ্জামান মানিক, কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জহুরুল হক জবির, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ত্রাণ ও দুর্যযোগ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর জব্বার, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুর রহমান মসনাত, আমিনুর রহমান ইমু, ডা. মেহেদি হাসান, রিমাস শাহারিয়ার, রুবেল আহম্মেদ, আব্দুল্লা আল মামুন, আব্দুল মান্নান, অন্তু, অনিক, নাহিদ প্রমুখ। এছাড়া ইউনিয়নের ৫৩টি মসজিদে দোয়ার আয়োজন করা হয়।

বেগমপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার হিজলগাড়ী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভার্চুয়াল মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শোক দিবসের আয়োজন করা হয়। আলোচনাসভা, পুরস্কার বিতরণী ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাইফুল আজম মিন্টু।  উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন স্বপন, সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী হোসেন, সদস্য আব্দুল আওয়াল, সহকারী শিক্ষক সফিকুল ইসলাম, ওয়াজেদ আলী, আজিজুল হক, মাসুদ রানা, সাজেদুর রহমান প্রমুখ।

গড়াইটুপি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, তিতুদহ ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি শুকুর আলীর উদ্যোগে ইউনিয়নের প্রতিটি মসজিদে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও তবারক বিতরণ করা হয়েছে। গড়াইটুপি ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দোয়া অনুষ্ঠান ও তবারক বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গড়াইটুপি ইউনিয়ন রাজনৈতিক উপদেষ্টা খালেকুজ্জামান মাস্টার, আমজাদ হোসেন, সাদেক আলী, মতিয়ার রহমান, আজিজ হোসেন প্রমুখ। এছাড়াও গড়াইটুপি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদুজ্জামান পলাশের উদ্যোগে বিকেলে দোয়া ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

অপরদিকে, তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি চেয়ারম্যান আকতার হোসেন ও সচিব জিয়াউর রহমানের উপস্থিতিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করা হয়েছে। গড়াইটুপি ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা অফিস প্রাইমারী ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করে।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, দিনটি উপলক্ষে আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ব্যাপক কর্মসূচি পালন করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বে-সরকারি ভবনসমূহে অর্ধনমিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ৮ টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্যার্পণ শেষে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে আলোচনাসভা, পুরস্কার বিতরণী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিস কক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিটন আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস  চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহমেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবীর, মুক্তিযোদ্ধা ডা. সাহবুদ্দিন আহমেদ সাবু, সাবেক পৌর কমান্ডার শেখ নুর মোহাম্মদ জকু, অগ্নিসেনা ময়নদ্দিন। অনলাইন সভায় আলোচনায় অংশ নেন  উপজেলা কৃষি অফিসার সোহেল রানা, সমাজসেবা কর্মকর্তা আফাজ উদ্দিন, নির্বাচন অফিসার এমএজি মোস্তফা  ফেরদৌস, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহিল কাফি, প.প. কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান খান, উপজেলা শিক্ষা সামসুজ্জোহা, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারী, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কৃষিবিদ গোলাম সরোয়ার মিঠু, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সালাউদ্দিন টিপু, মৎস কর্মকর্তা ফাতেমা কামরুন্নাহার আঁখি, তথ্য কর্মকর্তা স্নিগ্ধা দাস, বিআরডিবি কর্মকর্তা সায়লা সারমিন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাকসুরা জান্নাত, ভিডিপি কর্মকর্তা রওশনারা, সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল ইসলাম খানসহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি দফতরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা। অনুষ্ঠান শেষে রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

অন্যদিকে আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর আ.লীগের উদ্যোগে দিনটি উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৮টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় সঙ্গীতের তালে তালে জাতীয় পতাকা, দলীয় ও শোক পতাকা উত্তোলন শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে। বেলা সাড়ে ১১টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগী আলহাজ লিয়াকত আলী লিপু মোল্লার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা আ.লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আ.লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সহিদুল ইসলাম খান, উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি শাহ আলম মন্টু, হামিদুল ইসলাম আজম, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী খালেদুর রহমান অরুন, আতিয়ার রহমান, আলম হোসেন, ক্রীড়া সম্পাদক মহিদুল ইসলাম মুহিদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহমেদ ডন,  উপজেলা আ.লীগের প্রচার সম্পাদক মাসুদ রানা তুহিন, জেলা আ.লীগের সদস্য আবু মুছা, পৌর আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, পৌর আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম অপু মোল্লা, পৌর আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু প্রমুখ।

অপরদিকে, আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর যুবলীগের উদ্যোগে যথাযথ মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে। দিনটি উপলক্ষে জাতীয় ও শোক পতাকা উত্তোলন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মাস্ক বিতরণ, আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন। আলোচনাসভায় উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন সোনাহার ম-লের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, জেলা যুবলীগের সদস্য হাফিজুর রহমান হাকু, আজাদ, মহাসিন আলী, শুভ। উপজেলা যুবলীগের সদস্য সিদ্দিকুর রহমান মাস্টারের উপস্থাপনায় পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক আশাদুল ইসলাম ডিটু, যুগ্ম-আহ্বায়ক জাহেদুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ হাসান, উপজেলা যুবলীগের সদস্য নেছার আহমেদ প্রিন্স, সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

এদিকে, আলমডাঙ্গা উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সন্ধ্যার পর দোয়া মাহফিল ও আলোচনাসভার আয়োজন করে। আলোচনাসভায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমরানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ। বিশেষ অতিথি জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সদস্য সোহেল রানা শাহীন, তরিকুল ইসলাম টুকুল, সাবেক পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আলম হোসেন। অন্যদিকে বাংলাদেশ রেলওয়ে আলমডাঙ্গা রেলস্টেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করেছে।

এছাড়াও কালিদাসপুর ইউনিয়নের সকল মসজিদে মসজিদে দোয়া ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। কালিদাসপুর পারকুলা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ শেখ আশাদুল হক মিকার উদ্যোগে ইউনিয়নের সকল মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পারকুলা গ্রামে নিজ অফিসে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা হারেজ ডালিম। এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মোজাদ্দেল হোসেন, সহসভাপতি আব্দুল হান্নান, ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি জিয়াউল হক, সম্পাদক লিংকন জোয়ার্দ্দার, ফিরোজ মেম্বার, উপসহকারী প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মাসুদ আলী খান, মোল্লা বাবুল, মজনু, সবুজ, আসলাম, চাঁদ মিয়া, নিলয়, রশিদুল, জন, মুসা, রুবেল প্রমুখ।

ভালাইপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার চিৎলা ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দোয়া মাহফিলে উপস্থিত থেকে সহযোগিতা করেন চিৎলা ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ইনতাদুল হক, জেলা যুবলীগনেতা আব্দুল আলিম ফটিক, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক রবিউল ইসলাম মল্লিক, মনজুর রহমান মনজু, যুবলীগ নেতা সাইদুর রহমান প্রমুখ। এদিকে, ৮নং ওয়ার্ড আ.লীগের উদ্যোগে ওয়ার্ডের দুটি মসজিদে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আলমডাঙ্গার জেহালায় বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি হাসানুজ্জামান হান্নান। সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নান মাস্টারের পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন মতিয়ার রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী, মইনুদ্দিন, আনারুল ইসলামসহ মতিন মেম্বার প্রমুখ। সৃজনী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করে। এছাড়া জেহালা ইউনিয়ন যুবলীগ যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করেছে। ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক মোখলেছুর রহমান শিলনের সভাপতিত্বে দোয়া ও আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান, জেলা যুবলীগের সদস্য আজাদুল ইসলাম আজাদ, হাফিজুর রহমান হাপু, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আল ইমরান শুভ। উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা মহাসিন রেজা, সৈকত, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক হারুন-অর-রশিদ বকুল, আনারুল ইসলাম, হাসিবুল ইসলাম, জনি মেম্বার, আব্দুল মজিদ মেম্বার, আলমগীর, রশিদ, সাদ্দাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দোয়া মাহফিল, সংক্ষিপ্ত আলোচনা ও মাস্ক বিতরণ করা হয়।

অপরদিকে, মোমিনপুর পেশাজীবী পরিষদের উদ্যোগে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়। মোমিনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি খালিদ হাসান মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আখতারুজ্জামান গাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাইদুর রহমান, হেলাল উদ্দিন, নীলমনিগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আব্দুল মুন্নাফ, মিরাজুল ইসলাম মাস্টার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন খাদিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবু মুছাব।

এছাড়া মোমিনপুর ইউনিয়ন যুবলীগ দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করেছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সদস্য যুবলীগ নেতা মাফলুকাতুর রহমান সাজুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সভাপতি ছিলেন মোমিনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার। বিশেষ অতিথি ছিলেন মোমিনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আব্দুল মোমিন, সাধারণ সম্পাদক রানা আহমেদ প্রমুখ।

আসমানখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আসমানখালীতে গাংনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক। প্রধান অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহের আবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন আসমানখালী পুলিশ ক্যাম্প ইনর্চাজ আব্দুর রহীম, মজিবুল হক মুন্সি, আব্দুল খালেক প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদের সদস্য রকিবুল হাসান।

এদিকে, আসমানখালী বাজারে গাংনী ইউনিয়ন যুবলীগের আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা বজলুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রোকনুজ্জামান টোকন।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, দর্শনা ও পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়ন এলাকায় যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৮ টার দিকে দর্শনা পৌর আ.লীগের আয়োজনে পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে জাতীয়, শোক ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, শোকর‌্যালি, দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ ও শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া দর্শনা পৌরসভা, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শ্রমিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সংগঠনের পক্ষ থেকে শোক দিবস পালন করা হয়। দর্শনা সরকারি কলেজ মাঠে শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। দর্শনা পৌর আ.লীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের আয়োজক চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর। দর্শনা পৌর আ.লীগের সভাপতি পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দর্শনা পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী মুনছুর বাবু, আ.লীগ নেতা হাজি জয়নাল আবেদীন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজি শহিদুল ইসলাম, শফিকুল আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, গোলাম ফারুক আরিফ, বিল্লাল হোসেন, মুকুল মিয়াজি, সোলায়মান কবির, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আ. হান্নান ছোট, দর্শনা পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসলাম আলী তোতা, আ. মান্নান খান, হবা জোয়ার্দ্দার, মামুন শাহ, রেজাউল ইসলাম, রওশন আয়নাল, দামুড়হুদা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম মল্লিক, দর্শনা পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ববি, দর্শনা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন তপু, আলামীন, প্রভাত, রায়হান, লোমান, অপু সরকার প্রমুখ। এছাড়া দর্শনা সরকারি কলেজ ও জয়নগর চেকপোস্টে পৃথকভাবে জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। কলেজে জাতীয়, শোক পতাকা উত্তোলন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংক্ষিপ্ত শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সার্বিক আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ মফিজুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম প্রমুখ। জয়নগর চেকপোস্ট জামে মসজিদে দামুড়হুদা উপজেলা পরিচ্ছন্ন পরিদর্শক জামাত আলী, চেকপোস্ট সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক শাহজামালের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় দোয়া মাহফিল।

দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, দিবসটি উপলক্ষে শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবস্থিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন। সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা, বিশেষ মোনাজাত, যুব ঋণের চেক বিতরণ, কবিতা আবৃত্তি ও চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলারা রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, দামুড়হুদা উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মনজু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মহিউদ্দিন, আব্দুল ওদুদ শাহ্ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ কামাল উদ্দিন, দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সেলিম রেজা, দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল খালেক, পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাকি সালাম, উপজেলা এলজিডির প্রকৌশলী মাহাবুবুল হক, উপজেলা পাট কর্মকর্তা রিয়াজুল ইসলাম, উপজেলা আনছার ভিডিপির প্রশিক্ষক আশরাফুল হক, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ছানোয়ার হোসেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হোসনে জাহান ববি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আশরাফ আলী, উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার রাফিজুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা জিন্নাত আলী, উপজেলা স্যানিটারি পরিদর্শক জামাত আলী, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী কর্মকর্তা হোসনে মোবারক শিলন, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আছির উদ্দিন প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন মাও. মো আশরাফুল আলম। পরে দুপুরে জোহরের নামাজের পর উপজেলার প্রতিটি মসজিদে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় এবং প্রতিটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠানও করা হয়। অপরদিকে, বেলা ১১টায় দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সভাকক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভর সভাপতিত্বে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. হুমাইরা নার্গিস, উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক আবুল কাশেম, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান সহকারী মুনছুর আলীসহ উপজেলার সকল ইউনিয়ন সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শকগণ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মমিনুল ইসলামের নিজ উদ্যোগে মাগরিবের নামাজ শেষে গোবিন্দহুদা গ্রামের জামে মসজিদে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত শেষে মিষ্টি বিতরণ করা হয়। এছাড়াও দামুড়হুদা উপজেলা সদরের মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ডিএস দাখিল মাদরাসায়ও দিবসটি উপলক্ষে আলোচনাসভা, দোয়া অনুষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে।

কার্পাসডাঙ্গা/ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গায় কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের আয়োজনে দিবসটি পালন করা হয়। সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শিক্ষক শফিকউর রহমান। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সহিদুল হক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল করিম, আব্দুল কাদের বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক নজির আহম্মেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুর রহমান মুকুল, মখলেছুর রহমান রিপন, আ.লীগনেতা সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল বিশ্বাস মিঠু, ইউনিয়ন যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলাম এপি, এমদাদুল হক ইমন, খুরশিদ আলম নান্নু, সহসভাপতি আব্দুল মজিদ প্রমুুখ। দোয়া অনুষ্ঠানটির পরিচালনা করেন মাও. মিজানুর রহমান।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জীবননগর উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুর‌্যাল উন্মোচিত করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর প্রধান অতিথি থেকে গতকাল শনিবার সকালে এ ম্যুরাল উন্মোচন করেন। আলোচনাসভা, পুরস্কার বিতরণ, গাছের চারা বিতরণ ও মসজিদে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও জীবননগর পৌরসভাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ইউনিয়ন পরিষদ ও সংস্থা শোকদিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। সকালে ম্যুরাল উন্মোচনের পর এমপি হাজি আলী আজগার টগরের নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, জীবননগর থানা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। উপজেলা হলরুমে ইউএনও এসএম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল ও পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকি ও ওসি সাইফুল ইসলাম। শোকদিবসের প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ শেষে ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এমপি হাজি আলী আজগার টগর। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন হাজি আলী আজগার টগর এমপি। আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিলো জাতীয়, দলীয় ও শোকদিবসের পতাকা উত্তোলন, আলোচনাসভা, প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও দোয়া অনুষ্ঠান। পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে মুক্তমঞ্চের ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ, বাংলাদেশ জাসদের নেতা শামসুল আলমের নেতৃত্বে ম্যুরালে পূষ্পমাল্য অর্পণ, ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আলী আখতারের সভাপতিত্বে, পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু সালেহ মোহাম্মদ মুছার সভাপতিত্বে, সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যাদব কুমার প্রমাণিকের সভাপতিত্বে, শাপলাকলি আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাকী বিল্লাহর সভাপতিত্বে, হাসাদাহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমানে সভাপতিত্বে, উপজেলা আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ মাও. আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে, হাসাদাহ মডেল ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাও. আক্তারুজ্জামানের সভাপতিত্বে শোকদিবসের আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

হাসাদাহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, হাসাদাহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, হাসাদাহ ইউনিয়ন পরিষদ, হাসাদাহ ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে জাতীয় পতাকা উত্তলন ও দোয়া পরিচালনা করা হয়। হাসাদাহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ জসিম উদ্দীন জালাল, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সদস্য শফিকুল আলম নান্নু, হাসাদাহ ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যন আতিকুরজ্জামান সন্টু উপস্থিত ছিলেন। হাসাদাহ যুবলীগের সভাপতি জুম্মত মন্ডলের উদ্যোগে কাঙ্গালিভোজ অনুষ্ঠানে জীবননগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল সালাম ইশা, হাসাদাহ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফকরুল আলম মুকুল, সহসভাপতি মিন্টু ম-ল, জীবননগর মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আবুল কাশেম ঝড়ু প্রমূখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি জানিয়েছেন, আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়ন আ.লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে আজাদ পাবলিক লাইব্রেরী চত্বরে সকাল ৮ টায় জাতীয়, দলীয় ও কলো পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলন করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সন্ধ্যা ৭টায় স্থানীয় আজাদ পাবলিক লাইব্রেরী হলরুমে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্বে করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার। বক্তব্য রাখেন বিশিষ্টসমাজ সেবক মহাসীন আলীখান, এসএম আশরাফুজ্জামান টিপু, শেখ মইদুল ইসলাম, শেখ আতিয়ার রহমান, শেখ ফিরোজ হোসেন, খান তারিক মাহমুদ, হাফিজুর রহমান, নাজের আলী ও ৯নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালন ও বিশেষ দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিদুল ইসলাম মধু। অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলের মাঝে তবারক বিতরণ করা হয়।

অপরদিকে ইউনিয়ন আ.লীগের নবগঠিত কমিটিতে পদবঞ্চিত নেতাকর্মীদের নেতৃত্বে দিবসটি পালনে পৃথক কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। মীর মকলেচুর রহমান টজো, মির্জা লিটন ও মীর মাসুদ উল হক বুলুর নেতৃত্বে একাংশ নেতাকর্মীরা সকাল ৮টায় মরহুম মীর আনোয়ার আলী পটল মিয়ার গদি ঘরের সামনে জাতীয়, দলীয় ও কালো পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলন করেন। সন্ধ্যা ৭ টার দিকে মীর মকলেচুর রহমান টজোর সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন মির্জা লিটন, মীর মাসুদ উল খালেক বুলু, পল্লী চিকিৎসক খন্দকার মিজানুর রহমান, মহাসীন আলী খান, হাজি বিশারত আলী, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রহমান, মির্জা শাহাবুদ্দিন, মহিউদ্দিন, সামসুজ্জোহা, মিঠু, জ্যাকি, মোক্তার আলী, আবুল কাশেম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, মাও. আব্দুস সামাদ। অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলের মাঝে তবারক বিতরণ করা হয়।

আন্দুলবাড়িয়া প্রেসক্লাব ও সাহিত্য পরিষদের যৌথ উদ্যোগে সকাল ৮টায় সাহিত্য পরিষদ কার্যালয়ে জাতীয় ও কালোপতাকা উত্তোলন করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার। সকাল ৯ টায় প্রেসক্লাব ও সাহিত্য পরিষদের সভাপতি নারায়ণ ভৌমিকের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও স্বরচিত কবিতা আবৃত্তিতে অংশগ্রহণ করেন প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ডা. মীর আনিছুজ্জাঁমান, সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকা আশরাফুন্নাহার শোভা, জাসদ চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা সভাপতি ডা. আবুল হোসেন ম-ল, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম মামুন, কোষাধ্যক্ষ দাউদ হোসেন, খাজির আহম্মদ, সাহিত্যিক আব্দুল হামিদ ফকির, ডা. রফিকুল ইসলাম, শঙ্কর প্রামানিক, নাইমুর রহমান ও আব্দুল আলীম। অনুষ্ঠান শেষে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাও. আব্দুস সামাদ। এছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদ, বিভিন্ন ওয়ার্ড আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, আন্দুলবাড়িয়া কলেজ, ইউনিয়নের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাদরাসার উদ্যোগে দিবসটি উপলক্ষ্যে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, নানা আয়োজনে মেহেরপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি পালন উপলক্ষে গতকাল শনিবার সকাল ৮টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের পক্ষে বিশেষভাবে নির্মিত জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খাঁন। এরপর তিনি জেলা প্রশাসনের পক্ষে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার এস.এম মুরাদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সাধারণ সম্পাদক এম.এ খালেক, সহ-সভাপতি আব্দুল হালিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এসএম ইব্রাহীম শাহীন জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সভাপতি অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, জেলা যুবলীগের পক্ষে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান রিটন পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এছাড়াও মেহেরপুর সরকারি কলেজ, সরকারি মহিলা কলেজ, মেহেরপুর সরকারি টেকনিক্যাল কলেজ, মেহেরপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়,  মেহেরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মেহেরপুর ছহিউদ্দীন ডিগ্রি কলেজ, মেহেরপুর টিটিসি, মেহেরপুর এলজিইডি, জাতীয় মহিলা সংস্থা, জেলা শিল্পকলা একাডেমিসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়েছে। পরে সেখানে জাতির পিতা ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া করা হয়। এর আগে সকাল সাড়ে ৭টায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপির মেহেরপুরস্থ বাড়ির সামনের চত্বরে জাতীয় পতকা, শোক সম্বলিত পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন আ.লীগ নেতৃবৃন্দ।

এদিকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে এদিন সকাল ১০ টার দিকে মেহেরপুর বিচার বিভাগের উদ্যোগে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। জেলা ও দায়রা জজ এসএম আবদুস ছালামের সভাপতিত্বে তার কনফারেন্সরুমে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিরীন নাহার, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রিপতি কুমার বিশ^াস, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ কেরামত আলী, পিপি অ্যাড. পল্লব ভট্টাচার্য, জিপি অ্যাড. শাজাহান আলী প্রমুখ। পরে সেখানে জাতির জনক ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।

এদিন দুপুরে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. গোলাম রসুলের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন প্রকৌশলী সুবল কুমার প্রমুখ। এ সময় সেখানে দোয়া করা হয়। এর আগে জেলা পরিষদ চত্বরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও পুষ্পম্যাল্য অর্পণ অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

একই দিন দুপুরে মেহেরপুর পুলিশ লাইনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে পুলিশ লাইন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী। এ সময় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার হাসিবুল ইসলাম, ডিআইও ওয়ান ফারুক হোসেন, সদর থানার ওসি শাহ দারা খাঁন, টিআই জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। পরে সেখানে দোয়া করা হয়।

এদিকে মেহেরপুর জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার উদ্যোগে জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সভানেত্রী শামীম আরা হিরা। বক্তব্য রাখেন রোখসানা কামাল। পরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

একইদিন সকালে মেহেরপুর সদর উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. ইয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এ সময় সেখানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদুল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান মোমিনুল ইসলাম, সংরক্ষিত ভাইস চেয়ারম্যান লতিফুন নেছা লতাসহ উপজেলা পর্যায়ের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

এদিকে পবিত্র কোরান তেলাওয়াত, জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও দোয়া মাহফিলের মধ্যদিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে মেহেরপুর জেলা কৃষকলীগ। এদিন সকালে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা অর্ধ নমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে সেখানে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে শুক্রবার রাতভর সেখানে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করা হয়। এসব অনুষ্ঠানে জেলা কৃষকলীগের সভাপতি মাহাবুব আলম শান্তির নেতৃত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি আবুল হাশেম, সাংগাঠনিক সম্পাদক মোয়াজ্জিম হোসেনসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা।

এদিকে এদিন বিকেলে মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। জুম কনফারেন্সে প্রধান অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি। জুম কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন রাখেন পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. এসএম ইব্রাহীম শাহীন, পিপি পল্লব ভট্টাচার্য প্রমুখ।

এদিকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মেহেরপুর ছহি উদ্দীন ডিগ্রি কলেজ, মেহেরপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় ও বি.এম কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

এদিকে এদিন মেহেরপুর জেলা যুবলীগের উদ্যোগে শহরের পথচারীদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়েছে। এদিন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন শহর ঘুরে ঘুরে পথচারীদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেন। এসময় তার সাথে ছিলেন শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আক্কাচ আলী, জেলা যুবলীগের সদস্য ইয়ানুস আলী, সাজেদুুর রহমান সাজু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা প্রমুখ।

একইদিন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আলোচনাসভা শেষে গরীব ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মতিউর রহমান মতির উদ্যোগে সদর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামে ওই আলোচনাসভা শেষে খাদ্য বিতরণ করা হয়। এছাড়া সদর উপজেলার বুড়িপোতা ইউনিয়নের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে যাদবপুর মোড়ে দোয়া মাহফিল শেষে খাবার বিতরণ করা হয়। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহিত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. এসএম ইব্রাহীম শাহীন। বক্তব্য রাখেন বুড়িপোতা ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ জামান, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সরফরাজ হোসেন মৃদুল, মেহেরপুর বড় বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম খোকন, আওয়ামী লীগ নেতা আহসান হাবীব জিলা প্রমুখ। পরে যাদবপুর গ্রামবাসীর মধ্যে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়। এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকীতে দোয়া করা হয়।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুরের গাংনীতে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে দিবসটি পালিত হয়েছে। সকাল ৯ টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। সভাপতিত্ব করেন গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ। পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ খালেক, সাবেক এমপি মকবুল হোসেন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মুনতাজ আলী, গাংনী পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম নিরাপদ দাসসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। সকাল দশটায় গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে পতাকা উত্তোলন শোক শোভাযাত্রা ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, আশরাফুল ইসলাম ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি নবীর উদ্দিন প্রমুখ।

এদিকে সকাল ১০টায় পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে পতাকা উত্তোলন শোক শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাংনী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এমএ খালেক। অতিথি ছিলেন সাবেক এমপি মকবুল হোসেন, সাবেক পৌর মেয়র আহমেদ আলী ও পৌর কৃষকলীগ সভাপতি বদরুল আলম প্রমুখ। এদিকে গাংনী সরকারি কলেজ, গাংনী মহিলা ডিগ্রী কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির জনকের শাহাদত বার্ষিকী পালন করা হয়।

মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুরের মুজিবনগরে দিবসটি উপলক্ষে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় মুজিবনগর উপজেলা কমেপ্লেক্স মানচিত্রের কাছে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার, মুজিবনগর থানা ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুল হাশেম। এছাড়াও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক সোনালউদ্দীন, মুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসেন, মোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, দারিয়াপুর ইউপি চেয়ারম্যান তৌফিকুল বারী বকুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি  হেলালউদ্দীন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ সাকিব, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি প্রবির শেখ, মুজিবগর সরকারি শিশু পরিবার, টুরিষ্ট পুলিশসহ রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন। পরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন (ওসি) মো. আব্দুল হাশেম, কৃষি অফিসার আনিসুজ্জামান খান, যুব উন্নয়ন অফিসার বিপ্লব কুমার কুন্ড, মুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসেন, মুজিবনগর প্রেসক্লাবের সভপতি আলহাজ মুন্সী ওমর ফারুক, প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম, গোলাম ফারুক প্রমুখ। সঞ্চলনায় ছিলেন সমাজসেবা অফিসার আব্দুর রব প্রমুখ।

এছাড়া গতকাল বাদজোহর মুজিবনগর থানা পুলিশের আয়াজনে মুজিবনগর কমেপ্লেক্স জামে মসজিদ ও মোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যন মফিজুর রহমানের আয়াজনে দোয়া করা হয়। সকালে সুশান্ত স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আয়াজনে ও বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় গতকাল মুজিবগর সরকারি শিশু পরিবার চত্বরে একটি বৃক্ষের চারা লাগিয়ে উদ্বোধন করে নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার। এসময় উপস্থিত ছিলেন সুশান্ত স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাফিয়া শারমিন। তিনি বলেন, অত্র উপজেলায় প্রায় শতাধিক বিভিন্ন বৃক্ষের চারা রোপণ করা হবে।

ডাকবাংলা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহের সাধুহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী নাজির উদ্দীনের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু। বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফি উদ্দীন বিশ্বাস, আ.লীগ নেতা আশাদুজ্জামান কাজল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সংগঠনিক সম্পাদক গোলজার হোসেন মুকুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে এ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন সকালে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক করার পর মোনাজাত করা হয় ও শোকর‌্যালি বের করা হয়। শোকর‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজামান রিপনের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শরিফুন্নেছা মিকি, পৌর মেয়র জাহিদুল ইসলাম, কোটচাঁদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাবুবুর আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রিয়াজ হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক ফারজেল হোসেন ও যুগ্ম আহ্বায়ক সহিদুজ্জামান সেলিম ও প্রাক্তন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার তাজুল ইসলাম। আলোচনাসভা শেষে প্রধান অতিথি যুব ঋণ ও বিআরডিবি সমবায়ীদের মধ্যে গাছের চারা বিতরণ করেন। অনুরূপভাবে আওয়ামীলীগও এর অঙ্গ সংগঠনসমুহ আলোচনাসভা এবং দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। এছাড়া জাতীয় শোক দিবসে কোটচাঁদপুর সরকারি কেএমএইচ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অনুতোষ কুমার এবং পৌর মেয়র জাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে দোয়া ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More