মেহেরপুরে অশ্লীল ভঙ্গিতে টিকটক : তিন কিশোর প্রবেশনে

 

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর মহিলা কলেজের সামনের সড়কে অশ্লীল ভঙ্গিতে টিকটক করার অভিযোগে তিন কিশোরকে থানা হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। গত সোমবার রাতে তাদের থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এরা হলেন মেহেরপুর গড়পাড়ার শামীম উল্লাহর ছেলে একেএম সাদউল্লাহ শোভন (১৪), শহরের ফৌজদারীপাড়ার ইজিল শেখের ছেলে হৃদয় (১৫) ও একইপাড়ার বাবর আলীর ছেলে মাহফুজ (১৫)। এদের মধ্যে শোভন মেহেরপুর সরকারি উচ্চ বিদয়ালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র, হৃদয় ১০ম শ্রেণির পর পড়াশোনা বাদ দিয়েছে এবং মাহফুজ শহরের কেয়া স্টোর নামের এক দোকানের বিক্রয় কর্মী হিসেবে কর্মরত আছে। ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া টিকটক ভিডিওতে দেখা যায়, রাস্তায় দাঁড়িয়ে তোয়ালে পরে শোভন নামের ছেলেটি অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করছেন। এ সময় পাশ দিয়ে কয়েকটি মেয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় মেয়েদের উদ্দেশে তোয়ালে তুলে অন্তর্বাস প্রদর্শন করতেও দেখা যায় তাকে। ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার কয়েক ঘণ্টা পরই মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ শোভন নামে ওই যুবককে ধরে নিয়ে যায়। শহরের সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে থেকে তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। পরে শোভনের সহযোগিতা করার জন্য হৃদয় ও মাহফুজকেও থানায় নেয়া হয়। সদর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, থানা হেফাজতে নেয়া কিশোরদের বয়স ১৮ এর নিচে। তাই প্রবেশন অফিসারের কাছে তাদের হস্তান্তর করা হয়েছে। মেহেরপুর প্রবেশন অফিসার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আমরা তাদেরকে বাবা মায়ের হেফাজতে দিয়েছি। এছাড়াও স্কুল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তাদের নিয়মিতভাবে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More