মেহেরপুরে কালো শকুন উদ্ধারের পর অবমুক্ত, আটক ৩

 

মেহেরপুরের মুজিবনগর সীমান্ত থেকে ভারতে পাচারকালে চারটি আমেরিকান কালো শকুনসহ তিন পাচারকারীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।
সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজন সরকার বন্দি পাখিগুলো অবমুক্ত করেন।
মেহেরপুর গোয়েন্দা পুলিশের ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম জানান রোববার রাতে মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার রতনপুর সীমান্ত গ্রাম থেকে কালোশকুনসহ পাচারকারীদের আটক করা হয়।
আটকরা হলেন- মুজিবনগর উপজেলার আনন্দবাস গ্রামের লিয়াজ মল্লিকের ছেলে জাকির আলী (৩২), একই উপজেলার গোপালনগর গ্রামের আলাই মণ্ডলের ছেলে মজিবর (৩৮) ও আজগর (৩২)।
সাইফুল বলেন, আটকরা দীর্ঘদিন ধরে বিদেশী পাখি ভারতে পাচার করে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় এই চারটি আমেরিকান ব্লাক ভালচার বা কালো শকুন ভারতে পাচার করার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তারা। গোপন খবরে পেয়ে চারটি আমেরিকান কালো শকুনসহ (ব্লাক ভালচার) তিন পাচারকারীকে আটক করা হয়। পরে মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজন সরকারের ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠায়। উদ্ধার করা চারটি কালো শকুনের বাজার মূল্য প্রায় ২ লাখ টাকা। সেগুলো ৪ লাখ টাকায় ভারতে পাচার করা হচ্ছিল বলে গোয়েন্দা পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান।
মুজিবনগর উপজেলা বন কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান বলেন, কালো শকুনের ইংরেজি নাম ব্লাক ভালচার। এরা আমেরিকার কালো শকুন নামেও পরিচিত। যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ পুর্বাংশ থেকে দক্ষিণ আমেরিকার চিলি ও আর্জেন্টিনা পর্যন্ত এদের দেখতে পাওয়া যায়।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More