মেহেরপুরে ফেনসিডিল রাখার দায়ে যুবকের ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরে ফেনসিডিল রাখার দায়ে ইসমাইল হোসেন ওরফে রুবেল নামের এক ব্যক্তিকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদ- ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা; অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর স্পেশাল ট্রাইবুনাল ২য় আদালতের বিজ্ঞ বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত ইসমাইল হোসেন ওরফে রুবেল ফরিদপুর জেলার কোতোয়ালী থানার ভাটির লক্ষ্মীপুর চুনারঘাট গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৫ আগস্ট তৎকালীন গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের সীমান্ত ফাঁড়ির হাবিলদার তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহলদল তেঁতুলবাড়িয়া পাগলা ব্রিজের ওপরে একটি সিএনজি আটক করার পর সিএনজির মধ্যে থেকে ৮৫ বোতল ফেনসিডিলসহ ইসমাইল হোসেন ওরফে রুবেলকে এবং গাংনী উপজেলার মটমুড়া গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে ডাবলুকে গ্রেফতার করে। ওই ঘটনায় গাংনী থানায় ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫বি(১) ধারায় গাংনী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার প্রাথমিক তদন্ত শেষে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় মোট ১১জন সাক্ষী তাদের সাক্ষ্য প্রদান করেন। এতে আসামি রুবেল দোষী প্রমাণিত হয়। বিজ্ঞ আদালত তাকে ৫ বছরে সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদ- দেন। মামলার অপর আসামি ডাবলুর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাকে বেকসুর খালাস দেন।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পিপি কাজি শহীদ এবং আসামি পক্ষের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট কামরুল হাসান ও রোকিয়া খাতুন কৌঁসুলি ছিলেন

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More