যশোরে কেশবপুর থানার মামরায় গ্রেফতার চৌগাছা থানার এসআই : রিমাণ্ড মঞ্জুর

যশোর আঞ্চলিক প্রতিনিধি:যশোরের কেশবপুরে গাঁজাপাচার মামলায় গ্রেফতার হওয়া চৌগাছা থানার এসআই হাসানুজ্জামানকে মাদক মামলায় রিমাণ্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। মঙ্গলবার (১৬ জুন) যশোর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মঞ্জুরুল ইসলাম শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার রাতে কেশবপুর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। হাসানুজ্জামান যশোরের চৌগাছা থানায় এসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সাতক্ষীরা কলারোয়া উপজেলার সিংগা গ্রামের বাসিন্দা।যশোরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন বলেন,গাঁজা বিক্রিতে জড়িত সন্দেহে এসআই হাসানুজ্জামানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। জানা গেছে,সোমবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কেশবপুরের ভাল্লুকঘর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই দিবাকর মালাকারের নেতৃত্বে চাঁদড়া গ্রামে অভিযান চালানো হয়। এ সময় দুইটি মোটরসাইকেলে আসা তিনজনের কাছে থাকা ব্যাগের মধ্যে দুই কেজি এবং মোটরসাইকেলে সেটিং করা এক কেজিসহ তিন কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। এ সময় নাজমুল ইসলাম ওরফে রুহুল আমিন নামে একজনকে  গ্রেফতার করা হয়। আর এসআই হাসানুজ্জামান নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে নিজের পরিচয়পত্র ও পিস্তল দেখান। অভিযানে থাকা পুলিশ সদস্যরা তাকে সরকারি পিস্তল ও পরিচয়পত্র হস্তান্তর করতে বলেন। এরই মধ্যে এসআই হাসানুজ্জামানসহ আরও একজন দৌড়ে পালিয়ে যান। সোমবারই কেশবপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করে আটক নাজমুলকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন নামজুল। পরে রাতে এসআই হাসানুজ্জামানকে গ্রেফতার করেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা কেশবপুর থানার ওসি (তদন্ত) শেখ ওহিদুজ্জামান। মঙ্গলবার তাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিচারক তাকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More