লক্ষাধিক টাকার শিশুগাছ ও ইলেকট্রিক করাতসহ সরঞ্জাম উদ্ধার

গভীর রাতে পুলিশের অভিযানে সরকারি গাছ কাটার সময় হাতেনাতে আটক ৮

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: গভীর রাতে সরকারি রাস্তার মূল্যবান শিশুগাছ কেটে নেয়ার সময় আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ হাতে নাতে সংঘবদ্ধ সরকারি গাছ চোরচক্রের ৮ জনকে আটক করেছে। সংশ্লিষ্ট মামলায় তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে প্রায় লক্ষাধিক টাকার একটি মোটা শিশুগাছ ও ইলেকট্রিক করাতসহ গাছ কাটার সরঞ্জাম। শুক্রবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে। সকাল হতে না হতেই আটক  চোরদের মুক্ত করতে  কিছু নেতা থানায় অপতৎপরতা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার কুমারী ইউনিয়নের কুমারী-শ্যামপুর পাকা সড়কে শিশুসহ বেশ কিছু বড় বড় গাছ রয়েছে। সংঘবদ্ধ গাছ চোরচক্রের লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ওই গাছগুলোর প্রতি। গত শুক্রবার দিনগত রাত দুটোর দিকে সঙ্ঘবদ্ধ ওই চোরচক্র শ্যামপুর সড়কের সবচে বড় শিশু গাছ কাটা শুরু করে। এ সংবাদ পেয়ে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ রাত আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থলে অভিযান পরিচালনা করে। ওই সময় চোরচক্রের কয়েকজন পালিয়ে গেলেও ৮ জনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়। এরা হলেন আলমডাঙ্গার কামালপুরের আজিজুল হকের ছেলে বাপ্পী, একই গ্রামের মৃত মঞ্জুর রহমানের ছেলে ফারুক, পৌর এলাকার রাধিকাগঞ্জের মজনুর ছেলে জসিম, নওদা দূর্গাপুরের সিরাজ মালিথার ছেলে খলিল মালিথা, দুর্গাপুরের মৃত নবাই ম-লের ছেলে হানিফ, কামালপুরের মৃত জিয়ারুলের ছেলে শাফায়েত, শ্যামপুরের মৃত  রেজাউলের ছেলে জিনারুল ও পৌর এলাকার থানাপাড়ার জামসেদ আলীর ছেলে শহিদুল আলম রবি। এ সময় ইলেকট্রিক করাতসহ গাছ কাছ কাটার কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে প্রায় লক্ষাধিক টাকার একটি শিশুগাছ উদ্ধার করে। রাতে গাছটি পুরোপুরি কাটতে না কাটতে পুলিশ উপস্থিত হয়। অধিকাংশ গোটা কাটা অবস্থায় সারাদিন গাছটি দাঁড়িয়ে থাকলেও বিকেলে হঠাৎ দমকা হাওয়ায় তা ভূপাতিত হয়।

দ্রুত পুলিশ না পৌঁছুলে চক্রটি আরও অনেক মূল্যবান গাছ কেটে নিতো বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী মন্তব্য করেন। তারা জানান, বিভিন্ন গ্রামের ১৫-১৬ জন চোর একত্রিত হয়ে আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে সরকারি সড়কের গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এদের সাথে এলাকার প্রভাবশালীমহলের অনেকের সুসম্পর্ক রয়েছে।

আলমডাঙ্গা থানার পুলিশ পুরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আব্দুল আলীম জানান, গভীর রাতে রাস্তার সরকারি গাছ চুরি করে কাটা হচ্ছে। এসময় সংবাদ পেয়ে রাত্রিকালীন ডিউটিরত অফিসারকে ঘটনাস্থলে পাঠায়। সেখানে উপস্থিত হয়ে গাছ কাটার সরঞ্জামসহ ৮জনকে আটক করে নিয়ে আসে। এ বিষয়ে নিয়মিত মামলা দায়ের করে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এদিকে, এ চোরচক্রকে মুক্ত করতে সকাল থেকে দুপুর অবধি কতিপয় নেতা থানায় অপতৎপরতা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More