সরকার যে সুযোগ দিচ্ছে আপনারা সেই সুযোগ কাজে লাগান

আলমডাঙ্গায় সিআইজি সদস্যদের মাঝে গরু-ছাগল বিরতণকালে এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গায় সিআইজি সমিতির সদস্যদের মাঝে প্রধান অতিথি থেকে বকনা ৫০টি, ষাঁড় ১০টি ও ছাগী ৩১০টি বিতরণ করেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। গতকাল ১১ আগস্ট উপজেলায় প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের আয়োজনে ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি প্রোগ্রাম ফেজ : প্রজেক্ট (এনএটিপি-২)’র আওয়ায় এআইএফ-২ উপ-প্রকল্পের অধীনে সিআইজি সদস্যেেদর আয়বৃদ্ধিকরণে বকনা, ষাঁড় ও ছাগী বিতরণ করা হয়।

এ সময় প্রধান অতিথি বলেন, আপনারা যদি রেজিস্ট্রশনকৃত সমিতির মাধ্যমে ১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা সংগ্রহ করেন, তাহলে সমিতিকে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় আপনাদের দিচ্ছে ৩ লাখ ৮৭ হাজার, প্রায় ৪ লাখ টাকা। আপনাদের ফান্ডে সরকারের এই টাকাটা যুক্ত হচ্ছে। যারা এই টাকা নিয়েছেন তাদের ধন্যবাদ তো জানাবোই, পাশাপাশি যদি আপনারাও সমিতি করে এই প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সদস্য হয়ে এই সুযোগ নেন। এটা সরকার বাড়তি সুযোগ দিচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলছেন উদ্যোক্তা হন। আপনারা কয়েকজন মিলে সমিতি করেন। সরকার যে সুযোগটা দিচ্ছে;  সেই সুযোগটা কাজে লাগান। কেউ এই সুযোগ নিচ্ছেন কেউ নিচ্ছেন না। আমি অনুরোধ করবো প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের এখানে যারা আছেন তাদের। যারা সমিতি করে সরকারের এই সুবিধাটা পাচ্ছেন, এটার পরিধি বাড়ানো যায় কিনা সে ব্যাপারে সবাইকে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আপনারা যদি ইচ্ছে করেন তাহলে ছাগল-গরু উৎপাদনের মাধ্যমে দেশের চাহিদা পূরণ করে বিদেশে রফতানি করা সম্ভব হবে এবং নিজেরা সাবলম্বী হন। তার জন্য সরকার আপনাদের সব রকম সহযোগিতা করে যাবে।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আনিসুজ্জামান লালন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহমেদ ডন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রেজওয়ানা নাহিদ, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ উজ জামান লিটু বিশ^াস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু মুছা, সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অগ্নি সেনা মঈন উদ্দিন আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ জকু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, সাবেক প্রচার সম্পাদক মাসুদ রানা তুহিন, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আশাদুল হক মিকা, মাহমুদুল হাসান চঞ্চল, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, দপ্তর সম্পাদক মাসুদ সালেহীন উৎপল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল্লাহিল কাফি। কলেজিয়েট স্কুলের উপাধ্যক্ষ শামিম রেজার উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসার কর্মকর্তা সোহেল রানা, মৎস্য কর্মকর্তা ফাতেমা কামরুন্নাহার আঁখি, মৎস্য সম্প্রসার কর্মকর্তা আব্দুল মালেক, প্রাণিসম্পদ সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ডা. শরিয়তুল্লাহ, ডা. বায়েজিদ খন্দকার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার শামসুজ্জোহা, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারী, একাডেমি সুপারভাইজার ইমরুল হক, উপজেলা রিসোর্চ সেন্টারের ইন্সটেক্টর জামাল হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুর রশিদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এনামুল হক, সমাজ সেবা কর্মকর্তা নাজমুল হোসেন, খাদ্য কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) লিটন কুমার, জনস্বাস্থ্য উপ-সহকারী প্রকৌশলী হাসিবুজ্জামান, উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা আজিজুল হাকিম, বিআরডিবি কর্মকর্তা শায়লা শারমিন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাখছুরা জান্নান, সিআইডি সদস্য আবুল ফজল, সিআইজি সদস্য সাইদুল ইসলাম, কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্মসম্পাদক হাসানুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল হোসাইন বাদশা, ছাত্রলীগ নেতা রকি, সাকিব, অটাল, সজিব, টিটন, রঞ্জু প্রমুখ।

১১টি সিআইজি সমবায় সমিতির সদস্যদের মাঝে ১০টি ষাঁড়, বকনা ৫০টি ও ছাগী ৩১০টি বিতরণ করা হয়। ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি-২ প্রকল্প থেকে ৪২ লাখ ৬০ হাজার ১শ টাকা ও সমবায় সমিতি থেকে প্রদান করে ১৮ লাখ ৩৩ হাজার ৭শ টাকা।

পরে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন দলীয় কার্যালায়ে উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে আলমডাঙ্গা বধ্যভূমির নির্মাণাধীন পার্কের উন্নয়ন কাজের পরিদর্শন করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More