চুয়াডাঙ্গায় ব্লাক বেঙ্গল গোট উন্নয়ন মেলার পুরস্কার বিতরণকালে ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপি

সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে ব্লাক বেঙ্গল জাতের ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে হবে
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় হয়ে গেল দিনব্যাপী ব্লাক বেঙ্গল গোট উন্নয়ন মেলা। জেলার ব্রান্ডিং ব্লাক বেঙ্গল গোটের উন্নয়ন ও পুষ্টির চাহিদা বৃদ্ধির লক্ষে ওই মেলার আয়োজন করে সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস। মেলার প্রধান আকর্ষণ ছিলো ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছোট-বড় ছাগল। মেলায় সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ৩১ জন ছাগল খামারী অংশ নেন। মেলায় ২৫টি স্টলে দেশীয় পদ্ধতিতে হৃষ্টপুষ্ট করা ছাগল নিয়ে বসেন খামারীরা। জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ছাগল কিনতে আসেন ক্রেতারা। সমাপনীতে দুইজন সফল ছাগল খামারীকে পুরস্কার দেয়া হয় ২৪ ইঞ্চি এলইডি টিভি।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস চত্বরে আয়োজিত দিনব্যাপী ব্লাক বেঙ্গল গোট উন্নয়ন মেলার স্টল ঘুরে দেখেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ও পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামসহ প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাবৃন্দ। পরে সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের সম্মেলন কক্ষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গোলাম মোস্তফা। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের খুলনা বিভাগীয় উপ-পরিচালক ডা. শাহাবুদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান ও সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গরীব রুহানী মাসুম।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বলেন, চুয়াডাঙ্গার ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছাগলের কদর রয়েছে দেশজুড়ে। সুখ্যাতিও রয়েছে। তাই জেলার ব্র্যান্ডিং হিসেবে ব্লাক বেঙ্গল গোটকেই বেছে নেয়া হয়েছে। ওই ঐতিহ্য ও সুখ্যাতি ধরে রাখতে হবে। সারাদেশে চুয়াডাঙ্গার ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছাগলের যে সুনাম রয়েছে তা অক্ষুন্ন রাখতে হবে।
অনুষ্ঠান শেষে মেলায় অংশ নেয়া শ্রেষ্ঠ খামারী সদর উপজেলার মোমিনপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলাম ও জুগিরহুদা গ্রামের খালিদ হোসেনকে ২৪ ইঞ্চি এলইডি টিভি পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি। এছাড়া বাকি খামারীদেরও সান্ত¦না পুরস্কার দেয়া হয়।
এর আগে সকাল ১০টায় সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস চত্বর থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গোলাম মোস্তফা। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান ও চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ অধ্যাপক সিদ্দিকুর রহমান। পরে মেলার স্টল পরিদর্শন করেন অতিথিবৃন্দ। দুই পর্বের অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা.এএইচ এম শামিমুজ্জামান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More