চুয়াডাঙ্গার চার উপজেলায় ছাত্রদলের ১৩ ইউনিটের বিক্ষোভ : সমাবেশে বক্তারা

মোমিন কেবল ছাত্রদলের নয় : গোটা ছাত্র রাজনীতির আইকন

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকের নামে মিথ্যাচার ও কটুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলার ১৩ সাংগঠনিক ইউনিটের নেতৃবৃন্দ। গতকাল শুক্রবার ছাত্রদলের চুয়াডাঙ্গা, আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা ও জীবননগরে উপজেলা, থানা, পৌর ও কলেজ শাখার আয়োজনে পৃথকভাবে এ প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সমাবেশে বলা হয়, গত ২৮ নভেম্বর চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাজান খানকে অব্যাহতি প্রদান করে কেন্দ্রীয় সংসদ। এরপর গত ৯ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গা পৌর, সদর উপজেলা, সরকারি কলেজ, জীবননগর উপজেলা ও আলমডাঙ্গা পৌর ছাত্রদলের কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়। কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নির্দেশে জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তৌফিক এলাহী ও সাধারণ সম্পাদক মোমিনুর রহমান মোমিন মালিতা ওই কমিটির অনুমোদন দেন। এ ঘটনার পর কতিপয় ব্যক্তি কেন্দ্রীয় ছাত্রদল খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দ ও জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোমিন মালিতাসহ জেলার নেতাদের নামে মিথ্যাচার ও কটুক্তি করে চলেছে।
সমাবেশে ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দরা বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ আমাদের অভিভাবক, তাদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের কটুক্তি সহ্য করা হবে না। খুলনা বিভাগের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতৃবৃন্দ দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন ছাত্রদলকে একটি শক্তিশালী ভিত্তি দিতে। চুয়াডাঙ্গাতে তাদের সহযোগিতায় যে কমিটি দেয়া হয়েছে তা সঠিক, সুন্দর ও সময়োপযগী বলে আমরা মনে করি। নেতৃবৃন্দ বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রদলের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক মোমিনুর রহমান মোমিন মালিতা হলেন ছাত্রদলের অলংকার। মোমিন মালিতা কেবল ছাত্রদলের নয়, গোটা ছাত্র রাজনীতির আইকন। রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে ক্লিন ইমেজের অধিকারী হিসেবেই সর্বমহলে সুপরিচিত। ইতিবাচক রাজনীতির অন্যতম বাহক হিসেবেই কাজ করে যাচ্ছেন মেধাবী ছাত্রনেতা মোমিন মালিতা। জনপ্রিয়তাই ঈর্ষান্বিত হয়ে যারা মিথ্যাচার ও নানাভাবে কটুক্তি করছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
শাহাজান খানের উদ্দেশ্যে সমাবেশে নেতারা বলেন, শাহাজান তার কর্মফল ভোগ করছে। তার পদ বাণিজ্যের বিষয়টি রাজনৈতিক মহলে বহুল সমালোচিত বিষয়। তার পদচ্যুতির জন্য সে নিজেই দায়ী। দলের সিদ্ধান্তে সংগঠন চলবে, দল যখন যে সিদ্ধান্ত দিবে সেই মতেই আমরা চলবো। জেলা ছাত্রদলের কেউ কেউ অস্থিরতা তৈরির অপচেষ্টা করছে। যারা বা যাদের প্ররোচনায় বিভিন্ন মহলে, ফেসবুকে, ফেক আইডিতে কেন্দ্র ও জেলা নেতাদের নামে মিথ্যাচার ও কটুক্তি করছে তা বন্ধ না করলে আমরা বাধ্য হবো সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দিতে। নেতৃবৃন্দ বলেন, দীর্ঘদিনের ত্যাগ শ্রম মামলা হামলার মুখে দলের আদর্শের লড়ায়ে ভূমিকা রাখায় আমাদেরকে সংগঠন মূল্যায়িত করে দায়িত্ব দিয়েছে, এই দায়িত্ব পালনে এতোটুকুও পিছপা হবো না। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ দ্বিধা দ্বন্দ্ব ভুলে একসাথে কাজ করারও আহবান জানান।
পুরাতন হাসপাতাল রোডে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা, পৌর ও সরকারি কলেজ ছাত্রদল আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক কৌশিক আহমেদ রানা। পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব মাজেদুল আলম মেহেদীর উপস্থাপনায় বক্তব্য দেন সদর উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব মাহবুবুর রহমান মাহবুব, সরকারি কলেজের সদস্য সচিব সাইমুম আরাফাত। উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রদল নেতা সাইমুজ্জামান মিশা, সাইমুম আহমেদ ইকবাল, শরিফুল ইসলাম ছোটন, আব্দুল হাদিদ জিতু, সদর উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক আমির সোহেল, ফরিদুজ্জামান, আসিফ আলী, শফিকুল ইসলাম, পৌর ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক শাহেদ সিদ্দিকী সোহেল, মোস্তাফিজুর রহমান কনক, আমিনুল ইসলাম সৌরভ, মাহফুজ আহমেদ, কলেজ ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক আবু বক্কর, সাকিবুল হাসান, আরিফুল ইসলাম ও ইয়াসির আরাফাত।
আলমডাঙ্গা চাতাল মোড়ে অনুষ্ঠিত উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাহিদ হাসান শুভ। পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক আতিক হাসনাত রিংকুর উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আল ইমরান রাসেল, পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব মাহমুদুল হক তন্ময়, কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক আশিকুর রহমান আশিক, সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম লিমন। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদ রানা, বকুল হোসেন, শাহাবুল রহমান, রকিবুল ইসলাম টগর, লিটন আলী, রতন আলী, পৌর ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রকি, হাবিবুর রহমান রাজু, সাকিব আল হাসান লিমন, জুয়েল খান মেনন, লিখন হাসান হিরক, রুবেল হোসেন, ওয়াহেদুজ্জামান শুভ, কলেজ ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক শাওন আহমেদ, সুলতান, সাদমান সাদাদ, আহাদ আলী, মামুনুর রশিদ, আল মাহমুদ রাজ, রাসেল আহমেদ ও নাজমুল হাসান।
দামুড়হুদায় দলীয় অফিসে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক আফজালুর রহমান সবুজ। উপস্থিত ছিলেন সদস্য সচিব এমডিকে সুলতান, যুগ্মআহ্বায়ক সাগর হোসেন, ইমরান হোসেন, জুলফিকার আলী ভুট্টো, আব্দুর রহিম ও ইব্রাহিম হোসেন।
দর্শনা পুরাতন বাজারে আয়োজিত দর্শনা থানা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কামরুল হাসান লাবু। পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব আল মামুনের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক আরাফাত হোসেন, থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব ফরহাদ হোসেন, থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক রাসেল হুসাইন রিয়েল, কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক ফজলুর রহমান, সদস্য সচিব পলাশ আহমেদ, থানা ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক হাসানুজ্জামান হাসান, কামরুল হাসান সজীব, তুষার আহমেদ, সুমিত ইসলাম, সামাউল ইসলাম, পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আমিনুল ইসলাম অমিও, সাফিউর রহমান সাব্বির, তরিকুল ইসলাম, আব্দুল মুকিত, সাইদুর রহমান, কলেজ ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক মোফাজ্জেল হোসেন মুফা, নুর উদ্দিন ও আব্বাস উদ্দিন।
জীবননগর স্ট্যান্ডে অনুষ্ঠিত জীবননগর উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মামুন পারভেজ। পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক কিরন হাসনাত রাসেলের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব আশিবুর রহমান রোমান। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মাজেদুল হক, মুরাদ জং, রাজন আহমেদ, নাজমুস সালেহীন সাগর, রুবেল হোসেন, কাজুন আহমেদ, জুয়েল রানা, আল আমিন, পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আতিকুর রহমান জ্যাকি, শহীদ আফ্রিদি, শাওন আহমেদ, সাজেদুর রহমান সম্রাট, শাহিন হোসেন, মনিরুজ্জামান সাগর, কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মুরাদ হোসেন, সাদমান সাদেকীন স্বাধীন, সজীব আহমেদ ও এজাজ আহমেদ তন্ময়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More