স্টাফ রিপোর্টার: শীতের বিকেলে এলাকার খালের কোমরপানিতে নেমেছেন এক ব্যক্তি। খালপাড়ে দাঁড়িয়ে শিশু, কিশোরসহ একদল মানুষ। পানিতে নামা ব্যক্তিটি কান ধরে ওঠবস করছেন আর বলছেন, ‘আর জীবনে বেঁচে থাকা পর্যন্ত কমিশনার ভোট করবো না, করবো না, করবো না।’ এভাবে সাতটি ডুব দিয়ে নির্বাচন না করার প্রতিজ্ঞা করেন তিনি। পানিতে নেমে প্রতিজ্ঞা করা ব্যক্তির নাম মোকলেছুর রহমান। তার বাড়ি মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভার পূর্ব মালশাদহ এলাকায়। মেহেরপুর গাংনী পৌরসভা নির্বাচনে ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হয়েছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এ ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর এলাকায় ব্যাপক আলোচনা চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছেন, নির্বাচনে পরাজয়ের পর গতকাল রোববার বিকেলে এলাকার একটি দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলেন মোকলেছুর রহমানসহ স্থানীয় মানুষজন। আলাপের একপর্যায়ে আবেগপ্রবণ হয়ে নির্বাচন না করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এ জন্য তিনি খালের পানিতে নেমে কান ধরে ওঠবস করে প্রতিজ্ঞা করেন। তিনি নিজেই এই ঘটনা ভিডিও করে রাখার জন্য স্থানীয় ব্যক্তিদের বলেন। নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ফাইল কেবিনেট প্রতীকে নাছির উদ্দীন ৩৩৪ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন। বর্তমান কাউন্সিলর নবীর উদ্দীন (ডালিম) ৩১৭ ভোট, রবিউল ইসলাম (গাজর) ২৬৩ ভোট, মোকলেছুর রহমান (টেবিল ল্যাম্প) ১২৫ ভোট, আজির উদ্দীন (স্ক্রু ড্রাইভার) ৯৫ ভোট ও মনিরুজ্জামান (পানির বোতল) ৮৬ ভোট পেয়েছেন। জানতে চাইলে মোকলেছুর রহমান বলেন, প্রহসনের নির্বাচনে আর অংশগ্রহণ করবেন না বলে কান ধরে পানিতে ডুব দিয়েছেন। তারা ক্ষমতা প্রয়োগ করে ইভিএমের বোতামে নিজেদের ইচ্ছেমতো বোতামে টিপ দিয়ে নিয়েছে। এতে করে জনগণ তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারেননি। এ কারণে নির্বাচন ব্যবস্থার ওপরে হতাশ হয়ে আর কোনো দিন নির্বাচনে না দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More