ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রনাত হয়েছে ৯৭জন। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে সদরে ৩জন ও মহেশপুরে ১জনের মৃত্যু হয়। আর উপসর্গ নিয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার চান্দুয়ালী গ্রামে একজন, কোঁটচাদপুর দুইজন, শৈলকুপার শিক্ষক পাড়ায় একজন এবং মহেশপুরে তিনজনের মৃত্যু হয়। জেলা সিভিল সার্জন অফিস এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় সদর হাসপাতাল ল্যাব থেকে ২৪৪ টি নমুনার ফলা ফল হাতে এসেছে। এর মধ্যে ৯৭জনের দেহে করোনার ধরা পরেছে। আর এসময়ের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. হারুন-অর-রশিদ জানান, বর্তমানে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে প্রতিদিন নতুন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছে। রোগীর চাপ সামলাতে করোনা ইউনিটের শয্যা সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। বাড়তি রোগীর কারণে চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্টরা। এদিকে সারাদেশের ন্যায় ঝিনাইদহে শুরু হয়েছে কঠোর লকডাইন। সকাল থেকে ওষুধ, কাচাবাজার ছাড়া সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে। সড়কে জনসাধারণের উপস্থিতি নেই বললেই চলে। এদিকে লকডাউনের প্রথম দিনেই সকাল থেকে বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে অনেকটা জনশূন্য রাস্তা ঘাট। আর এ লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য বৃষ্টির মধ্যেও মাঠে আছেন প্রশাসন। এছাড়া প্রশাসনকে সহযোগিতা করার জন্য মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের দ্বিতীয় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট। লে.কর্নেল মোর্শেদুল হাসান পিএসসি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী করোনা মহামারীর এ সময়ে সরকারি আদেশ নিশ্চিতকল্পে অসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার উদ্যেশ্যে নিয়োজিত রয়েছে। এরই অংশ হিসাবে ৫৫ পদাতিক ডিভিশন নিজ দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় নিয়মিত টহল পরিচালনা করছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More