ইংল্যান্ডে সিরিজ জয়ের আশা পাকিস্তানের

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ইংল্যান্ডের মাটিতে পাকিস্তানের সবশেষ টেস্ট সিরিজ জয়ের স্মৃতিতে ধুলো জমে গেছে। সময়ের হিসেবে যে পেরিয়ে গেছে প্রায় দুই যুগ। তবে এবার আশায় বুক বাঁধছে এশিয়ার দলটি। তরুণ ফাস্ট বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি জানালেন, সিরিজ জয়ের ব্যাপারে তারা আশাবাদী। আগামী অগাস্ট-সেপ্টেম্বরে ‘সম্ভাব্য’ এ সিরিজে তিনটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি খেলার কথা পাকিস্তানের। সিরিজটি নিয়ে এখনও চূড়ান্ত ঘোষণা আসেনি। তবে শেষ পর্যন্ত তা মাঠে গড়ালে, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট সময় কোয়ারেন্টিনে থাকতে ও পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিতে পাকিস্তান দল ইংল্যান্ডে যাবে অনেক আগেই। এরই মধ্যে তিন সংস্করণে পাকিস্তানের পেস আক্রমণের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে ওঠা আফ্রিদি ইংল্যান্ডে টেস্ট খেলবেন এবারই প্রথম। গতকাল বুধবার ভিডিও কনফারেন্সে ২০ বছর বয়সী পেসার বললেন, ইংল্যান্ডে টেস্ট খেলা কঠিন হলেও সিরিজ শুরুর আগে পর্যাপ্ত প্রস্তুতির সময় পাওয়ায় তাদের সুবিধা হবে। “ইংল্যান্ড সফর সবসময়ই কঠিন, তাদের কন্ডিশনে টেস্ট খেলা আরও কঠিন। টেস্ট শুরুর আগে অনুশীলন ম্যাচগুলিতে (নিজেদের মধ্যে) নিজেদের আমরা ঝালিয়ে নেয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।”
“টেস্ট শুরুর অনেক আগে আমরা ইংল্যান্ডে যাবো, ফলে অনেক সময় থাকবে আমাদের হাতে। তাই আমরা নেটে অনুশীলনের ও নিজেদের প্রস্তুত করার অনেক সময় পাবো, যা আমাদের ছন্দ পেতে সহায়তা করবে।” পাকিস্তান সবশেষ ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজ জিতেছিলো ১৯৯৬ সালে (তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০তে)। গত কয়েক বছরে ইংলিশ কন্ডিশনে তাদের পারফরম্যান্স অবশ্য কিছুটা ভালো। ২০১৯ বিশ্বকাপে যদিও তেমন ভালো করতে পারেনি দলটি। তবে সবশেষ দুই টেস্ট সিরিজ ড্র করেছিলো তারা। ২০১৭ সালে এখানেই জিতেছিলো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। এসবই আশা দেখাচ্ছে আফ্রিদিকে।
“ইংল্যান্ডে দ্বিপাক্ষিক সিরিজটি জয়ের ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। অতীতের ফল যদি দেখেন, ২০১৬ সালে টেস্ট সিরিজ ড্র হয়েছিলো (২-২)। পরের বছর সেখানে আমরা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছি। সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডে আমাদের পারফরম্যান্স ভালো। তাই আমরা আরও একবার ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী।” পাকিস্তানের আগে ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজ খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধসহ বেশ কিছু নিয়মে পরিবর্তন এসেছে। ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়রা এসব নিয়মের সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নেন, তা দেখার অপেক্ষায় আফ্রিদি। “টেস্ট শুরুর আগে যথেষ্ট সময় পাচ্ছি। তাই অনুশীলন ম্যাচগুলোতে আমি আমার লাইন ও লেংথ নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করবো। নতুন নিয়ম অনুযায়ী আমরা বাড়িতে নিজেদের প্রস্তুত করার চেষ্টা করছি।”

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More