ক্রিকেট থেকে অবসর না নেয়ার তথ্য ফাঁস করলেন মাশরাফি নিজেই

স্টাফ রিপোর্টার: দীর্ঘদিন ফর্মে না থাকায় বাংলাদেশ সাবেক ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফির অবসর নিয়ে নানা গুঞ্জন চলছিলো। বিশেষ করে ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে তার বাজে পারফর্মম্যান্স তাকে নিয়ে অবসরের গুঞ্জনটা আরো বেশি ভাবিয়ে তুলে। শোনা যায়, বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেলে অবসর নিতে চেয়েছিলেন মাশরাফি। কিন্তু বোর্ড থেকে সম্মানের সঙ্গে বিদায় দেয়ার প্রস্তাবে সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। বিশ্বকাপ শেষ হলে দেশীয় ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা ভেবেছিলেন হয়তো দেশের মাটিতেই অবসর নিতে চান তিনি। তাই তো বোর্ডের পক্ষ থেকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করা হয়। কিন্তু সেই সিরিজের পরেও অবসর না নেয়ায় সবার মাঝেই কৌতূহল তৈরি হয়। মাশরাফিকে অবসর নেয়ার জন্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২ কোটি টাকা খরচ করে বিদায়ী ম্যাচ আয়োজন করতে চেয়েছিলো বিসিবি। খরচের বিষয়টি ভেবে মাশরাফি সে প্রস্তাবে রাজি হননি। ‘নট আউট নোমান’ ফেসবুক পেজের সঙ্গে অনলাইন আড্ডায় এসব তথ্য জানান সাবেক এই অধিনায়ক। ই আড্ডায় মাশরাফিকে অবসর নিয়ে প্রশ্নে বলা হয়, আমরা জানি যে আপনি বলেছিলেন বিশ্বকাপের পর অবসর নেবেন। সেই সময় আপনার অবসর নিয়ে সর্বমহলের একটি চাপ ছিলো আপনার ওপরে, যে আপনাকে অবসর নিতে হবে। সবাই মিলে আপনার অবসরের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে দিয়েছিলেন। আপনি কি জেদ থেকে অবসর নেননি? এ বিষয়ে মাশরাফি বলেন, দেখেন আমার অবসরের ঘটনা এর আগেও একটা ঘটেছে। বিশ্বকাপের আমাদের লাস্ট ম্যাচে আমি অবসর নিতে চেয়েছিলাম। এরপরে জিম্বাবুয়েকে ২ কোটি টাকা দিয়ে নিয়ে এসে ম্যাচ খেলানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিলো। তখন আমার মনে হয়েছিলো মাশরাফির এটা প্রাপ্য, ঠিকাছে নিজের মাঠ থেকে অবসর নেয়ার বিষয়টি। কিন্তু দুই কোটি টাকা খরচ করে ম্যাচ আয়োজন করে সেখানে অবসর নেয়া এটি আমার প্রাপ্য নয়। ঠিক এই কারণে আমি অবসর নেই নি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More