গ্যালারিতে দর্শকের উপস্থিতিতেই ফুটবল ফিরলো ভিয়েতনামে

মাথাভাঙ্গা মনিটর: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ভয় উপেক্ষা করে গ্যালারিতে হাজার-হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে ফুটবল ম্যাচ হয়েছে ভিয়েতনামে। সামাজিক দূরত্ব মানার বালাইও ছিলো না সমর্থকদের মধ্যে। কোভিড-১৯ মহামারীতে গত মার্চ থেকে ভিয়েতনামের পেশাদার লিগের খেলাও স্থগিত ছিল। তবে কমিউনিস্ট শাসিত দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে কারো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি; আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ৩২৮। অর্থনীতির চাকা স্বাভাবিক করতে দেশটি মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে। নাম দেইন শহরের ৩০ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন স্টেডিয়ামের গ্যালারি পূর্ণ হওয়ার পর দরজা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। এত দর্শকের উপস্থিতিতে স্বাগতিক দল নাম দেইন ২-১ গোলে হেরে যায় ভিত্তেলের কাছে। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ম্যাচ উপভোগ করেছে ফুটবলপ্রেমীরা। গুটিকয়েকের দেখা গেছে সুরক্ষা মাস্ক ব্যবহার করতে। অবশ্য মাঠে প্রবেশের আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের বন্দোবস্তো রাখা হয়েছিলো সমর্থকদের জন্য। তাপমাত্রাও চেক করা হয়েছিলো। সমর্থকদের মাস্ক পরে মাঠে আসার নির্দেশনা দেয়া হয়েছিলো। ম্যাচ উপভোগের পর ভাইরাসকে ভয় না পাওয়ার কথা জানান জয়ী দল ভিত্তেলের সমর্থক ভান তাম। “আমরা যদি ভাইরাসকে ভয় পেতাম, তাহলে আসতাম না।” “স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, তা বেশ ভালো। এ কারণেই সবাই আনন্দ করতে পারছে।” করোনাভাইরাস রুখতে টেস্ট করা, কোয়ারেন্টিনের ব্যাপারে দ্রুত এবং কড়া পদক্ষেপ নিয়ে প্রশংসা পাচ্ছে ভিয়েতনাম। যে কারণে অন্যদের চেয়ে দেশটি দ্রুত অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের পথে ফিরতে পেরেছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More