চুয়াডাঙ্গায় নারী ক্রিকেটারকে উত্ত্যক্ত : প্রতিবাদ করায় পিটিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার মাখালডাঙ্গায় এক নারী ক্রিকেটারকে পিটিয়ে জখম করেছে বখাটেরা। চুয়াডাঙ্গা থেকে নিজ বাড়ি কুন্দিপুর গ্রামে ফেরার পথে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় তাকে মারধর করা হয়। এ সময় ওই নারী ক্রিকেটারকে উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে আরও তিনজনকে পিটিয়ে জখম করে বখাটেরা। গতকাল শনিবার বিকেল ৫টার দিকে মাখালডাঙ্গা মাঠের রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে গতকাল রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুন্দিপুর গ্রামের ইউনুস আলীর মেয়ে ইভা খাতুন (১৪) বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) শিক্ষার্থী এবং চুয়াডাঙ্গা জেলার মহিলা ক্রিকেটার। গতকাল শনিবার বিকেল ৫টার দিকে ইভা খাতুন চুয়াডাঙ্গা শহর থেকে নিজ গ্রামে ফিরছিলেন। এ সময় পথিমধ্যে মাখালডাঙ্গা মাঠের রাস্তায় পৌছালে দীননাথপুর বটতলাপাড়ার মহিদুুল ইসলামের ছেলে শাওন হোসেন(২১), লেথু মিয়ার ছেলে ইউনুস আলী(২০) ও খোরশেদ আলীর ছেলে রহিম(২১) অশ্লীল কথাবার্তা বলতে থাকে ও উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এ সময় ইভা খাতুন প্রতিবাদ করলে তাকে বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় চিৎকার শুনে পাশের বাগানে কাজ করা তরিকুল ইসলাম ও আসিব নামের দুজন ইভাকে উদ্ধার করতে আসলে বখাটেরা তাদেরকেও পিটিয়ে জখম করে। পরে ইসরাফিল নামের আরেকজন এগিয়ে এলে তাকেও পিটিয়ে জখম করে বখাটেরা। ঘটনার সময় বখাটেরা একটি মোবাইলফোন ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More