চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু আন্তঃউপজেলা ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপি

বেশি বেশি টুর্নামেন্টের আয়োজন করে খেলাধুলার সুদিন ফিরিয়ে আনতে হবে

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু আন্তঃউপজলো ফুটবল টূর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেল ৩টায় চুয়াডাঙ্গা পুরাতন স্টোডিয়ামে এ ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনালে চুয়াডাঙ্গা ‘এ’ দল ২-১ গোলে চুয়াডাঙ্গা “বি” দলকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। ফাইনালে “এ” দলের পক্ষে সোহেল ও জুয়েল ১টি করে গোল করেন। “বি” দলের পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন ফায়াজ। টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন সাগর ও সর্বোচ্চ গোলদাতার (৪টি) খেতাব লাভ করেন “এ” দলের সোহেল। পরে খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, চুয়াডাঙ্গায় এখন মাঠে মাঠে খেলাধুলা হয় না। আমি চুয়াডাঙ্গা মহাকুমা থেকে শুরু করে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরও প্রায় ১৮-১৯ বছর ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। আমার সময় মাঠে খেলোয়াড়দের জায়গা দেয়া যেতো না। আর এখন চুয়াডাঙ্গায় ৫টি মাঠ পড়ে রয়েছে। কিন্তু খেলোয়াড় পাওয়া যায় না। খেলোয়াড়দের উদ্দেশে বলেন, আজকে ফাইনাল খেলা কিন্তু খেলার মধ্যে কোনো উত্তেজনা নেই। কারণ একটায় চুয়াডাঙ্গায় কোনো খেলা নেই, লিগ নেই। তাই তারা খেলা ও অনুশীলন করার সুযোগ পায় না। তাই বেশি বেশি টুর্নামেন্টের আয়োজন করে খেলাধুলার সুদিন ফিরিয়ে আনতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) কনক কান্তি দাস, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ সুলতানারা রতœা ও সদর থানার অফিসার তদন্ত লুৎফুল কবীর। অতিথিগণ আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলের হাতে প্রাইজমানি, ট্রফি ও মেডেল তুলে দেন। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিপুল আশরাফ, সাবেক কৃতি ফুটবলার ও ফিউচার ফুটবল একাডেমির কোচ মাহমুদুল হক লিটন, মিঠু জোয়ার্দ্দার, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নাহার কাকুলী, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান মাসুম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহাজাদী মিলি, চুয়াডাঙ্গা ডিএফএর সহ-সভাপতি রেজাউল হক জোয়ার্দ্দার রেজা, ইমরান হুসাইন, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান চাঁদ, সাবেক রেফারি ওয়ালিউল্লাহ সিদ্দিক, সাবেক গোলকিপার ওবায়দুল হক জোয়ার্দ্দার, জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দীলরুবা খুকু, সাবেক ফুটবলার শহিদুল কদর জোয়ার্দ্দার, হাজি সেলিম জোয়ার্দ্দার, দিনার, হাসান প্রমুখ। টুর্নামেন্টটির সার্বিক আয়োজন করেন চুয়াডাঙ্গা ডিএফএর সভাপতি রফিকুল ইসলাম লাড্ডু। চ্যাম্পিয়ন দলের ম্যানেজার ছিলেন নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার ও কোচ ছিলেন হ্যাজি। রানার আপ দলের কোচ ছিলেন রিয়ান। এর আগে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ৮টি দলের অংশগ্রহণে বঙ্গবন্ধু আন্তঃউপজলো ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করা হয়।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More