বিরাট কোহলির ঠিক বিপরীত বাবর আজম

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বিরাট কোহলি ও বাবর আজম- নাম দুটো শুনলে যে কারও মনে নিশ্চয়ই দুটো ভিন্ন প্রতিচ্ছবি ভেসে ওঠে। প্রথমজন প্রচ- আগ্রাসী, অপরজন অনেক শান্ত। এ বিষয়ে একমত ম্যাথু হেইডেনও। পাকিস্তানের বর্তমান ব্যাটিং পরামর্শকের মতে, বাবর-কোহলি দুইজনের অবস্থান দুই মেরুতে।
চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান স্কোরার বাবর আজম। পাঁচ ম্যাচে চার ফিফটিতে ৬৬ গড়ে পাকিস্তানি অধিনায়ক করেছেন ২৬৪ রান। পাকিস্তানের টানা পাঁচ জয়ের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা বাবর সম্পর্কে যে কেউ বলতেই পারেন, ক্যাপ্টেন লিডিং ফ্রম দ্য ফ্রন্ট।
বাবরকে পাকিস্তানের ‘ক্লাসি অপারেটর’ দাবি করে এক সংবাদ সম্মেলনে হেইডেন বলেছেন, ‘সে (বাবর) হচ্ছে ধারাবাহিক ব্যাটার। ব্যাটিংয়ের সময় সে প্রচ- ধৈর্যের পরিচয় দেয়। কোহলির মতো অতোটা আগ্রাসী আচরণ সে করে না। তার ব্যক্তিত্ব কোহলির পুরোপুরি উল্টো।’
সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজের স্ট্রাইকরেট বাড়াতে পারেন বাবর। এ বিষয়ে সাবেক অসি বাঁহাতি ব্যাটারের মন্তব্য, ‘নিজের স্বাভাবিক শট খেলে সে (বাবর) প্রথমে উইকেটে সেট হয়। এক পর্যায়ে তার স্ট্রাইক রেট হয়ে যায় ১৪০ থেকে ১৫০।’
দুবাইয়ে বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান। ম্যাচটি হেইডেনের কাছে অন্যরকম এক চ্যালেঞ্জেরও। কারণ এদিন তাকে (হেইডেন) স্বদেশের বিরুদ্ধে খেলতে হবে।
এছাড়া তার অন্যতম ঘনিষ্ঠ বন্ধু জাস্টিন ল্যাঙ্গার অস্ট্রেলিয়ার হেড কোচ। এ বিষয়ে হেইডেনের ভাষ্য, ‘এটা এমন এক অনুভূতি যার কোনো ব্যাখ্যা নেই। আপনারা জানেন আমি ২০ বছর অস্ট্রেলিয়া দলে খেলেছি। অস্ট্রেলিয়ার নাড়ি-নক্ষত্র আমি ভালো করেই জানি। আমার আর তার (ল্যাঙ্গার) অবস্থা একই। কোচ হিসেবে আমাদের কারোরই আন্তর্জাতিক শিরোপা জেতা হয়নি।’

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More