সৌরভের বিরুদ্ধে মেয়ের মজার অভিযোগ

স্পোর্টস রিপোর্টার: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভারতজুড়ে চলছে লকডাউন। এ পরিস্থিতিতে কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন দেশটির ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক এবং বর্তমান বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী? সেই ছবিটাই সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধ্যমে ফ্যানদের সঙ্গে শেয়ার করলেন তার কন্যা সানা। সৌরভ গৃহবন্দি হয়ে কীভাবে সময় পার করছেন- এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তার স্ত্রী ডোনা বলেন, বোর্ড প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর কাজের চাপ কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছিল ওর। এখন লকডাউনে বাড়িতে সিনেমা দেখায়, বই পড়ায় ও মেয়েকে সময় দিচ্ছে ও। এছাড়া সানা এখন রান্না শিখছে। বিদেশে পড়তে গেলে সেখানে একাই রান্না করতে হবে। তাই এখন থেকেই নতুন পদ রান্না করা শিখছে সে। সেগুলো বাড়ির লোকেরা পরখ করে দেখছেন। তবে সৌরভের ভালোবাসা কমেছে বলে অভিযোগ করেছেন কন্যা সানা। লকডাউনের এ দিনগুলোতে তার প্রতি বাবার ভালোবাসায় অন্য কেউ ভাগ বসিয়েছে বলে মনে করেন তিনি। সানার প্রিয় পোষ্যের নাম সুগার। এখন পরিবারের বাকিদের মতো সেও সোফায় বসে অলস সময় কাটাচ্ছে। আর সেটির সঙ্গে মজায় দিন কাটাচ্ছেন মহারাজ কন্যা। সদ্য সৌরভ-ডোনার মাঝে সোফায় পোষ্যের আরাম খাওয়ার মুহূর্ত ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রামে আপলোড করেছেন তিনি। পোস্টটির ক্যাপশনে সানা লিখেছেন, পরিবারে বাবা-মায়ের মাঝের জায়গাটা আমার। তবে এখন দেখে মনে হচ্ছে স্থানটি দখল হয়ে যাচ্ছে। দুজনের মাঝে ঢুকে পড়ে ভালোবাসায় ভাগ বসাচ্ছে অন্য একজন।’ বাবার সঙ্গে খুনসুটি করে এভাবেই সৌরভের ভালোবাসা কমেছে বলে মজার অভিযোগ করেছেন মেয়ে। ঘরবন্দি থাকলে কী হবে, রিল্যাক্স মুডেই পাওয়া গেছে সৌরভকে। সাদা পাঞ্জাবি-পায়জামা পরে পায়ের ওপর পা তুলে আরামে সোফার এক প্রান্তে বসে রয়েছেন তিনি। অন্য প্রান্তে গোলাপি সালোয়ার পরে বসে রয়েছেন ডোনা। আর সৌরভ ও ডোনার মাঝেই আদর খাচ্ছে সুগার। মেয়ের এ পোস্ট দেখে সানাকে সান্ত¡না দিয়েছেন সৌরভ। তিনি লিখেছেন, ‘মাত্র ৫ মিনিটের জন্য বসেছে সুগার।’ লকডাউনের মাঝে সেলেব্রেটি বাবা-মেয়ের এমন খুনসুটি সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টদের বেশ মনে ধরেছে। দেশের করোনা সংকটকে কঠিন পিচে টেস্ট ম্যাচের সঙ্গে তুলনা করেছেন সৌরভ। তিনি বলেন, এখন একদম বোলিংবান্ধব পিচে কঠিন টেস্ট চলছে। ক্রিকেটভক্তরা টেস্ট খেলা উপভোগ করেন। এ সঙ্কটময় অবস্থাও একটা টেস্ট। মানসিকতার লড়াই। বল সিমও করছে, স্পিনও হচ্ছে। ব্যাটসম্যানের ভুল করার এখানে কোনও জায়গা নেই। এপর্যায়ে উইকেটে টিঁকে থেকে ব্যাট হাতে ধীরে ধীরে স্কোরবোর্ড চালু রাখতে হবে। সবাই মিলে ধৈর্য দেখিয়ে রান করলে উইকেট বাঁচিয়ে আমরা কঠিন ম্যাচ জিততে পারবো। করোনা রুখতে সরকারি ত্রাণ তহবিলে ৫১ কোটি দান করেছে সৌরভের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই। সেই সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে ৫০ লাখ টাকার চাল দিয়ে দুস্থদের মুখে খাবার তুলে দিয়েছেন তিনি। এরপর বেলুড় মঠে ২০০০ কেজি চাল দিয়েছেন প্রিন্স অব ক্যালকাটা। পরে ইসকন মন্দিরের সঙ্গে যুক্ত হয়ে লকডাউনে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের মুখে অন্ন তুলে দেয়ার পরিষেবা চালু করেন দাদা।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More