স্থানীয়দের বাধায় ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে কোয়ারেন্টিন সেন্টার হচ্ছে না

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বিশ্বকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হওয়া ভারতের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে কোয়ারেন্টিন সেন্টার বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো রাজ্য সরকার। তবে মুম্বাইয়ে জনগনের তীব্র আপত্তির মুখে এ সিদ্ধান্ত থেকে তারা সরে আসতে বাধ্য হয়েছে। এই ব্যাপারে মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের বিরুদ্ধে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের সর্বস্তরের মানুষ একজোট হয়ে প্রতিবাদ করেছে। যে কারণে ভেস্তে গেছে এই উদ্যোগ। মহারাষ্ট্রে করোনা ভয়াবহ আকার নিয়েছে। আক্রান্তের সঙ্গে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থাকে চিঠি দিয়ে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানানোর জন্য ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিলো মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন। ওয়াংখেড়ের ভিতর সমস্ত হোটেল, লজ, ক্লাব, এগজিবিশন সেন্টার, ডর্মিটারি সব কিছুই রাজ্য সরকারের হাতে তুলে দেয়ার কথা বলা হয়েছিলো। যদিও এজন্য সরকার স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষকে উপযুক্ত ভাড়া দিতেও রাজি। মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোশিয়েসন এতে রাজি হলেও বাধ সাধে স্থানীয় বাসিন্দারা। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামকে কোনোভাবেই তারা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানাতে দেবে না। তাদের আবেগ জড়িয়ে রয়েছে এই ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে। বিশ্বজয়ের স্টেডিয়ামকে তারা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানাতে চান না। জনতার যুক্তি, পুরোটাই খোলা জায়গা। এটা করোনা চিকিৎসার আদর্শ স্থান নয়। শেষ পর্যন্ত স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রতিবাদে সিদ্ধান্ত বদল করেছে মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More