সাকিবকে ছাড়াই দক্ষিণ আফ্রিকার পথে টিম টাইগার্স

স্টাফ রিপোর্টার: তিন ভাগে বিভক্ত হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এর মধ্যে প্রথম বহরে দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দেশে দেশ ছাড়লো আটজন। তাদের মধ্যে চারজন ক্রিকেটার এবং বাকি চারজন অন্যান্য সদস্য।শুক্রবার (১১ মার্চ) বেলা পৌনে ১১টার ফ্লাইটে তারা ঢাকা ত্যাগ করেন। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তিন ম্যাচে ওয়ানডে সিরিজ এবং দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দেশটির উদ্দেশে প্রথম বহরে যাওয়া আটজন হলেন- ক্রিকেটার নাসুম আহমেদ, নাজমুল হোসেন শান্ত, ইয়াসির আলি রাব্বি ও এবাদত হোসেন। এছাড়া নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন, টিম ম্যানেজার নাফিস ইকবাল, ফিজিও বায়েজিদ ইসলাম ও টিম অ্যানালিস্ট নাসির আহমেদ নাসু তাদের সাথে উড়াল দিয়েছেন। প্রথম বহর যাওয়ার ১২ ঘণ্টা পর রাত ১১টার ফ্লাইটে দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দেশে উড়াল দেয় বাংলাদেশ দলের দ্বিতীয় বহর। শেষ বহরে ঢাকা শনিবার বেলা পৌনে ১১টার ফ্লাইটে ঢাকা ত্যাগ করবেন টেস্ট দলের স্পেশালিস্টরা। দুইদিনে তিন বহরের বাইরেও আরও একটি ছোট্ট গ্রæপ উড়াল দেবে দক্ষিণ আফ্রিকায়। বিসিবি মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম, চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী এবং নতুন ফিল্ডিং কোচ শন ম্যাকডারমট থাকবেন ওই বহরে। তবে তাদের ফ্লাইটের সময় এখনো জানা যায়নি। সফরে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে টাইগাররা মাঠে নামবে ১৮ মার্চ। সিরিজের বাকি দুটি ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে ২০ ও ২৩ মার্চ। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শেষে শুরু হবে দুটি টেস্ট। প্রথম টেস্ট শুরু হবে ৩১ মার্চ এবং দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ৮ এপ্রিল। নির্ধারিত সময় অনুযায়ী ১২ এপ্রিল টেস্ট ম্যাচ শেষে পরদিন ১৩ এপ্রিল ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজকে সামনে রেখে ওয়ানডে ও টেস্ট স্কোয়াডে সাকিব আল হাসানকে রাখা হলেও পরে ছুটি নেয়ায় পুরো সিরিজে তাকে আর পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে প্রথমদিকে স্কোয়াডে থাকলেও দলের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাচ্ছেন না সাকিব।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More