অনুমোদনহীন ডে-কেয়ার সেন্টার চলবে না সংসদে বিল

স্টাফ রিপোর্টার: শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র বা ডে-কেয়ার স্থাপন করতে হলে সরকারের কাছ থেকে অনুমোদন ও সনদ নিতে হবে- এমন বিধান রেখে বিল সংসদে উত্থাপিত একটি বিলে ডে-কেয়ার থেকে শিশু হারিয়ে গেলে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদ-ের পাশাপাশি ৫ লাখ পর্যন্ত জরিমানার প্রস্তাব করা হয়েছে।
এটি আইন হিসেবে পাস হওয়ার পর অ-ুমোদন ছাড়া কেউ শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র পরিচালনা করতে পারবে না। অনুমোদন ও নিবন্ধন ছাড়া শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র চালালে ২ বছরের জেল ও ১০ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে বিলের খসড়ায়।
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা শনিবার ‘শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র বিল-২০২১’ সংসদে তোলেন। দুই মাসের মধ্যে বিলটি পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দিতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
এ আইন হলে, সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নিজ ব্যবস্থাপনায় নির্ধারিত শ্রেণির কেন্দ্র স্থাপন ও পরিচালনার নিবন্ধন সনদ নিয়ে শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র পরিচালনা করতে পারবে। এখন যেসব শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র পরিচালিত হচ্ছে, নতুন আইন পাস হওয়ার ৬ মাসের মধ্যে সেগুলোকে নিবন্ধন নিতে হবে। তখন সব শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে আসবে।
বিলে বলা হয়েছে, শিশু দিবাযতœ কেন্দ্রে সংক্রামক রোগের বিস্তার ঘটালে, তাতে সহায়তা করলে বা তথ্য গোপন করলে ৬ মাসের কারাদন্ড বা ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে।
এছাড়া শিশু এবং ক্ষেত্রমতে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুর প্রয়োজনীয় সেবা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা, নিরাপত্তা, চিকিৎসা, বিনোদন, চিকিৎসা, শিক্ষা ও শিশুর অনুকূল পরিবেশ ও প্রয়োজনীয় সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। প্রতি ৩ মাসে একবার শিশুর অভিভাবকদের সঙ্গে মতবিনিময় করতে হবে।
বর্তমানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে ১১৯টি এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ২০টি শিশু দিবাযতœ কেন্দ্র রয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More