ইউপি-পৌরসভায় ২০ সেপ্টেম্বর থেকে আবার ভোট

স্টাফ রিপোর্টার: মহামারীর কারণে আটকে থাকা ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভায় আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ভোট গ্রহণ হবে। ওইদিন ১৬১ ইউনিয়ন পরিষদ এবং নয়টি পৌরসভায় একযোগে ভোট গ্রহণ চলবে। গতকাল নির্বাচন কমিশন সভা শেষে এক প্রেস বিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে জুন মাসে ইউপি ভোট শুরু করেও এগিয়ে নিতে পারেনি ইসি।
ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপে ২১ জুন ২০৪টি ইউনিয়নে নির্বাচন হয়েছিল। তখন ১৬৭ ইউপির নির্বাচন স্থগিত রাখা হয়। তবে প্রার্থী মারা যাওয়ায় পাঁচটি ইউপি এবং সেন্টমার্টিন ইউনিয়নে ভোট এই দফায়ও হচ্ছে না। ২০ সেপ্টেম্বর খুলনা বিভাগের খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা এবং চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও নোয়াখালীর ১৬১ ইউপি এবং নয়টি পৌরসভায় ভোট হবে। এ ছাড়া নয়টি পৌরসভার সবকটিতে এবং ১৬১ ইউপির মধ্যে ১১টিতে ইভিএমে ভোট গ্রহণ হবে বলে ইসি সচিব জানান। ইসি সচিব বলেন, এ বছরের মধ্যে বাকি নির্বাচনগুলো সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে। এ মাসের শেষে আরেকটি কমিশন বৈঠক হবে। সেখানে ইউপি ভোটগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। প্রায় ৪ হাজার ইউনিয়ন পরিষদের বাকি সাধারণ নির্বাচন কয় ধাপে এবং কবে নাগাদ অনুষ্ঠিত হবে, সে বিষয়ে পরবর্তী বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে গতকাল কমিশন সভায় বসে। এই সভায় কুমিল্লা-৭ উপনির্বাচন, সিটি, জেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হয়।
কুমিল্লা-৭ আসনে উপনির্বাচন ৭ অক্টোবর: কুমিল্লা-৭ আসন, ১৫ উপজেলা, এক পৌরসভা, সিটি করপোরেশনের পাঁচ কাউন্সিলর ও পৌরসভার পাঁচ কাউন্সিলর পদে উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে আগামী ৭ অক্টোবর। গতকাল এসব নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় আলাদা আলাদা তফসিল ঘোষণা করেছে। ইসি সচিব এই তফসিল ঘোষণা করেন। ইসি সচিব জানান, কুমিল্লা-৭ আসনসহ স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে উপনির্বাচনও হবে ৭ অক্টোবর। এ ছাড়া ১৫ উপজেলার উপনির্বাচনের মধ্যে নয়টি চেয়ারম্যান পদ, ছয়টি ভাইস-চেয়ারম্যান; একটি পৌরসভায় মেয়র পদে, কাউন্সিলর পদে পাঁচটি এবং বিভিন্ন সিটি করপোরেশেনের পাঁচটি কাউন্সিলর পদের জন্য ভোট গ্রহণ হবে ৭ অক্টোবর।
সাবেক ডেপুটি স্পিকার আলী আশরাফের মৃত্যুতে শূন্য হয় কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসন। আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আলী আশরাফ গত ৩০ জুলাই মারা যান। সংবিধান অনুযায়ী, ৯০ দিনের মধ্যে উপনির্বাচন করতে হলেও দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে কোনো নির্বাচন নিয়ে এগোয়নি ইসি। এখন সংক্রমণ কিছুটা কমায় এই উপনির্বাচনসহ আটকে থাকা ইউনিয়ন ও পৌরসভাগুলোর ভোটের তারিখও দিয়েছে ইসি। এই তফসিল ঘোষণার দিনই সিরাজগঞ্জ-৬ আসনের সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন মারা যান। ফলে ৯০ দিনের মধ্যে এই আসনেও উপনির্বাচন করতে হবে ইসিকে।
সিটির ৫ ওয়ার্ডে ভোট ৭ অক্টোবর: ঢাকা দক্ষিণ সিটির ২২ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড ও ৭৩ নম্বর ওয়ার্ড, বরিশাল সিটির ২৫ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড, চট্টগ্রাম সিটির ১৬ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড ও রাজশাহী সিটির ৯ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে উপনির্বাচন হবে ৭ অক্টোবর।
চার দলের কাছে ব্যাখ্যা চাইবে ইসি: এক প্রশ্নের জাবাবে ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেছেন, যেসব রাজনৈতিক দল হিসাব জমা দেয়নি। কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী দলগুলোর কাছে ব্যাখ্যা চওয়া হবে। ৩৯ নিবন্ধিত দলের মধ্যে এবার ৩৪টি দলের অডিট রিপোর্ট পেয়েছে ইসি। একটি দল ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়ার জন্য আবেদন করেছে আর বাকি চারটি দলের প্রতিবেদন/আবেদন কিছুই পায়নি ইসি।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More