করোনায় একদিনে দেশে আরও ১৬ মৃত্যু  

স্টাফ রিপোর্টার: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রাণহানি বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮ হাজার ৩১৪ জনে দাঁড়াল। সময় ৪৪৩ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে পাঁচ লাখ ৪১ হাজার ৮৭৭ জন দাঁড়িয়েছে।

প্রতিদিনের মতো বুধবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনাভাইরাস বিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, সারাদেশে করোনাভাইরাসের সর্বশেষ সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যালোচনায় মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ১১৭টি আরটি-পিসিআর ল্যাব, ২৯টি জিন-এক্সপার্ট ল্যাব ও ৬৮টি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাবে অর্থাৎ ২১৪টি ল্যাবরেটরিতে ১৬ হাজার ৬১২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৩৮ লাখ ৯৩ হাজার ৬৫৪টি। সময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হন আরও ৪৪৩ জন।

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৩৩ জন সুস্থ হয়েছেন। পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৮৯ হাজার ৩৫৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার হার ২ দশমিক শূন্য ৬৭ শতাংশ। পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ১২ জন পুরুষ ও চারজন নারী। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১৫ জন হাসপাতালে এবং একজন বাড়িতে মারা যান।

বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ১৬ জনের মধ্যে চল্লিসশোর্ধ্ব চারজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব চারজন এবং ষাটোর্ধ্ব আটজন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৬ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১২ জন, চট্টগ্রামে একজন, খলনায় একজন এবং রংপুর বিভাগে দুইজন রয়েছেন।

গতকাল বুধবার পর্যন্ত মোট মৃত্যু ৮ হাজার ৩১৪ জনের মধ্যে পুরুষ ছয় হাজার ২৯৩ জন (৭৫ দশমিক ৬৯ শতাংশ) ও মহিলা দুই হাজার ২১ জন (২৪ দশমিক শূন্য ৩১ শতাংশ)।

গত বছর ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথসংক্রমণ ধরা পড়ে। গত ১৪ জানুয়ারি তা সোয়া ৫ লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে গত বছরের ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা একদিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত।

বিশ্বে শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ইতোমধ্যে ১০ কোটি ৯৫ লাখ পেরিয়েছে, মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৪ লাখ ২০ হাজার। জনসহপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বিশ্বে শনাক্তের দিক থেকে ৩৩তস্থানে আছে বাংলাদেশ, আর মৃতের সংখ্যায় ৩৮তঅবস্থানে রয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More