খালেদা জিয়ার অবস্থার উন্নতি নেই : বিএনপি’র অনশন আজ

চুয়াডাঙ্গায় যুবদল ও ছাত্রদলের উদ্যোগে সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত
স্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই। করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা আগের মতো রয়েছে বলে জানিয়েছেন মেডিকেল বোর্ডের এক চিকিৎসক। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র-আইসিইউতে নেয়ার প্রয়োজন হলেও নেয়া হচ্ছে না। কারণ আইসিইউ’র সব সাপোর্ট সিসিইউতে সংযুক্ত করা হয়েছে। তবে সব সময় আইসিইউ’র সাপোর্টের প্রয়োজন হচ্ছে না। মাঝেমধ্যে আইসিইউ’র সাপোর্ট লাগছে। তাই সবকিছু প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার অক্সিজেন লাগছে এটা বড় কোনো সমস্যা নয়। এটি ছাড়াও মেজর সমস্যা রয়েছে। তবে প্রতিদিনই ২-৩ লিটার অক্সিজেন লাগছে। প্রতিদিন প্রধান ইলেকট্রোলাইট অর্থাৎ সোডিয়াম, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও ক্লোরিন উপাদানের পরিমাণ কমছে। রক্তের হিমোগ্লোবিন কোনোভাবেই বাড়ানো যাচ্ছে না। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইনসুলিনের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্যের অন্য প্যারামিটারগুলোর অবস্থা অবনতির দিকে। কিডনির ক্রিয়েটিনিন হু হু করে বাড়ছে। তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকলেও ডায়াবেটিস একেবারে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে না। তাই ইনসুলিনের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। শরীরে প্রচ- দুর্বলতা আছে।
এদিকে, বিএনপির চেয়াপারসন খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার চুয়াডাঙ্গায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে যুবদল ও ছাত্রদল এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। দোয়া মাহফিলে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, বিএনপির চেয়াপারসন বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, আরাফাত রহমান কোকোসহ দেশবাসীর জন্য দোয়া করা হয়।
জানা গেছে, মেডিকেল বোর্ড হাসপাতালের বাইরের কাউকে এলাউ করছে না। ঝুঁকি থাকায় খালেদা জিয়ার কাছে যেতে নিষেধাজ্ঞা আছে। শুধু বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী শিমুল বিশ্বাস প্রতিদিন হাসপাতালে যাচ্ছেন। তবে তারাও সিসিইউ’র বাইরের গ্লাস দিয়ে শুধু সালাম বিনিময় করেন। খালেদা জিয়াও ইশারায় জবাব দেন। ডিউটি ডাক্তাররাই শুধু রাউন্ডের সময় সিসিইউতে যাচ্ছেন। প্রয়োজন মাফিক তরল জাতীয় খাবার বাসা থেকে রান্না করে হাসপাতালে সরবরাহ করা হচ্ছে। খালেদা জিয়ার সঙ্গে সার্বক্ষণিক আছেন পুত্রবধূ শর্মিলা রহমান সিঁথি ও গৃহপরিচারিকা ফাতেমা ও স্টাফ ফারজানা রুপা।
এদিকে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়ার দাবিতে আজ সারা দেশের জেলা ও মহানগরে গণঅনশন কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে। ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর নয়াপল্টনস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গণঅনশন কর্মসূচি পালন করা হবে। এতে সকল রাজনৈতিক দলকে সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গত শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনের ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) ১৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আগামীকাল বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং তার বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে গণঅনশনের ডাক দিয়েছি। আমরা আশা করবো সকল রাজনৈতিক দলের নেতারা আমাদের এই গণঅনশন কর্মসূচিতে একাত্মতা পোষণ করবেন। আমরা আপনাদের আহ্বান জানাচ্ছি দয়া করে আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আসবেন। গণঅনশন কর্মসূচির জন্য আমরা অনেক জায়গায়ই চেয়েছি কিন্তু আমাদের কোথাও জায়গা দেয়া হয়নি। আর আমাদের এই কর্মসূচি থেকেই পরবর্তী প্রোগ্রাম আমরা ঘোষণা করবো। তিনি বলেন, আপনারা জানেন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে তার পরিবার সরকারের কাছে আবেদন করেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল আইনমন্ত্রী বলেছেন, এতে আইনের কোনো সুযোগ নেই তাকে বিদেশে পাঠানোর জন্য। এটা ডাহা মিথ্যা কথা। সরকার চাইলে তাকে মুক্তি দিতে পারেন, সরকার চাইলে তাকে বিদেশে পাঠাতে পারেন। কিন্তু তাদের লক্ষ্য একটাই- বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ রাজনীতি থেকে সরিয়ে এবং এ দুনিয়া থেকে সরিয়ে দেয়ার জন্যই তারা তাকে বিদেশ যেতে দিতে চাচ্ছে না।
চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদলের সহদফতর সম্পাদক হাসান বিশ^াস আশা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদল উদোগে বিএনপির চেয়াপারসন খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বাদজুম্মা ঝিনাইদহ পুরাতন বাস্ট্যান্ড বায়তুল আকসা জামে মসজিদে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদলের সভাপতি শরিফ-উর-জামান সিজার। সিনিয়র সহ-সভাপতি আশরাফ বিশ^াস মিল্টু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাজি রবিউল হক মল্লিক, বকুল শেখ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম বিলাস, ক্রীড়া-সম্পাদক আহনাফ শাহারিয়ার সনি, মৎস্য ও পশু পালন বিষয়ক সম্পাদক সোহেল রানা টুটুল, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক ইয়াছিন আরাফাত ফিরোজ, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান হাবীব মামুন, সহসভাপতি শেখ সাহাবাজ সুজন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মালিক রাহাত হাসান রাজিব, যুগ্মআহবায়ক হাসমত আলী, পৌর যুবদলের আহবায়ক বিপুল হাসান হ্যাজি, যুগ্ম আহবায়ক সোলাইমান হক, সদর উপজেলা ছাত্রদল আহবায়ক আনিচুর রহমান আনিচ, জেলা যুবদলের সদস্য ইমদাদুল হক ইমদাদ,আসাদুজ্জামান টিটু, সদর উপজেলা সদস্য মওলা, নাজমুল, শাহজামাল, পৌর যুবদলের সদস্য বাসার, শহিদ, ফরহাদ, হৃদয়, সবুজ, অনিক, মাহফুজ,বাবু খান, আলী, সাদিম, আকাশ প্রমুখ।
এদিকে, বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ সকল নেতৃবৃন্দের রোগ মুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ছাত্রদল। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল শুক্রবার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা, পৌর ও সরকারি কলেজ, আলডাঙ্গা উপজেলা, পৌর ও কলেজ, দর্শনা থানা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদল দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা, পৌর ও সরকারি কলেজ ছাত্রদলের উদ্যোগে রজব আলী সুপার মার্কেটে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক কৌশিক আহম্মেদ রানা। দোয়া পরিচলনা করেন জেলা ছাত্রদলের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আবু সুফিয়ান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান, মীর শুভ জামান, যুগ্মসম্পাদক আমানউল্লাহ আমান, সাহাবুদ্দীন আহমেদ, সাইমুম আহমেদ ইকবাল, আব্দুল হাদিদ জিতু, সদর উপজেলা সদস্য সচিব মাহবুবুর রহমান, পৌর সদস্য সচিব মাজেদুল আলম, কলেজ সদস্য সচিব সাইমুম আরাফাত, সদর উপজেলা যুগ্ম আহবায়ক আমির সোহেল, জেলা ছাত্রদলের সহ সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী, শাহজান আলী, পাঠাগার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক সাইমুন ইসলাম শান্ত, সদস্য সোয়েব তিতাশ, পৌর যুগ্মআহবায়ক আমিনুল ইসলাম, কলেজ যুগ্ম আহবায়ক আবু বকর, ইয়াসির আরাফাত, সদর উপজেলা যুগ্ম আহবায়ক হাসানুজ্জামান রাজ, সদস্য সোহাগ আলী, আরিফুল ইসলাম, নাজিম উদ্দীন, পৌর সদস্য শারুখ আহমেদ, আরমান আলী, জিয়া ছাত্র পরিষদের সহ-সভাপতি হাসানুজ্জামান হাসান, যুগ্ম সম্পাদক সংগীত আহমেদ প্রমুখ।
আলমডাঙ্গা উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের উদ্যোগে ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন চাতাল মোড়ে দোয়া মহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক জাহিদ হাসান শুভ। উপস্থিত ছিলেন পৌর আহবায়ক আতিক হাসনাত রিংকু, সদস্য সচিব মাহমুদুল হক তন্ময়, কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম লিমন, উপজেলা সদস্য সচিব আল ইমরান রাসেল, যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ রানা, রফিকুল ইসলাম টগর, রতন আলী, পৌর যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান রাজু, ওয়াহিদুজ্জামান শুভ, কলেজ যুগ্ম আহবায়ক আল মাহমুদ রাজ, সাদমান সাদাত, সদস্য মাসুদ রানা বাপ্পী, জীবন আলী, সুজন আলী, পৌর সদস্য রিয়াজুল ইসলাম প্রমুখ।
দর্শনা থানা, পৌর ও কলেজ ছাত্রদলের আয়োজনে জয়নগর জামে মসজিদে দোয়া মহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতি করেন পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক আরাফাত হোসেন, উপস্থিত ছিলেন জেলা সহ-সভাপতি লিংকন, দর্শনা থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব ফরহাদ হোসেন, পৌর সদস্য সচিব আল মামুন, কলেজ সদস্য সচিব পলাশ, থানা যুগ্মআহবায়ক রাসেল হুসাইন রিয়েল, হাসানুজ্জামান, সুজন, সাকিবুল হাসান, পৌর যুগ্মআহবায়ক সাব্বির হোসেন, সাইদুর হোসেন, কলেজ যুগ্ম আহবায়ক মুফা, থানা সদস্য আকিদুল, আমজাদ, সোলায়মান, আলামিন, মেহেদী হাসান, রাসেল আহমেদ স্বপন প্রমুখ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More