চুয়াডাঙ্গায় পরিবহন মালিক ও শ্রমিকের সাথে আলোচনাসভায় পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম

মহাসড়কে দাঁড়িয়ে কোনো পরিবহন থামিয়ে চাঁদার টাকা তোলা যাবে না

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের আয়োজনে সড়ক ও মহাসড়কে সব রকমের চাঁদাবাজি বন্ধের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকের সাথে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স ভবনে এ আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম।
এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে হবে সড়ক ও মহাসড়কে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের। আইন অমান্য হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাই আপনারা সবাই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবেন। জেলার কোনো প্রান্তে চাঁদাবাজি করা যাবে না। পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। বিশেষ করে শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কথা বলে টাকা আদায় করেন। পরিবহন শ্রমিকদের জন্য সমিতি থেকে নির্ধারিত যে চাঁদা সেটি নির্দিষ্ট কোনো অফিস বা কাউন্টারে বসে সংগ্রহ করতে হবে। বিভিন্ন সড়ক মহাসড়কে দাঁড়িয়ে কোনো পরিবহন থামিয়ে চাঁদার টাকা তোলা যাবে না। যদি চুয়াডাঙ্গার কোনো সড়ক বা মহাসড়কে দাঁড়িয়ে পরিবহন থামিয়ে চাঁদার টাকা তোলা হয়। যারা এই টাকা তুলবে সাথে সাথে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর সড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধে পুলিশ কাজ করছে ভবিষ্যতেও এ কাজ অব্যাহত থাকবে। অনুষ্ঠান শেষে এ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে সরকারি নিয়ম মেনে ও সরকার নির্ধারিত ভাড়া নিয়ে গাড়ি চালানোয় তিনি পরিবহন মালিক ও শ্রমিকের ধন্যবাদ দেন।
একেএম মঈনউদ্দিন, এ নাসির জোয়ার্দ্দার, এম জেনারেল ইসলাম ও হাবিবুর রহমান লাভলু তাদের বক্তব্য চলমান পরিস্থিতিতে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরে বলেন, বিভিন্ন রোডে অসংখ্য থ্রি-হুইলারসহ অনিবন্ধিত যানবাহন চলাচল করছে। এছাড়াও তারা কোনো প্রকার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন না।
ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মাহবুব কবীরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান। আরও উপস্থিত ছিলেন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর শাহাবুদ্দিন, আহসান হাবীব, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক একেএম মঈনউদ্দীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উসমান আলী, জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সভাপতি হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হাসান জোয়ার্দ্দার, জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ নাসির জোয়ার্দ্দার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদর উদ্দিন খাঁন, জেলা পেট্রোলপাম্প মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এসএম তসলিম আরিফ, জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হাজি রিপন ম-ল, জেলা ট্যাংক-লরি, কাভার্ডভ্যান, দাহ্য পদার্থ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আরিফ শেখ প্রমুখ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More