জামিন আবেদন ও জরুরি ফৌজদারি বিষয় শুনতে সারাদেশে নিম্ন আদালত খোলা থাকবে ভার্চুয়ালি

স্টাফ রিপোর্টার: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জামিন আবেদন ও অতীব জরুরি ফৌজদারি বিষয় নিষ্পত্তি করতে ভার্চুয়ালি শুনানির জন্য সোমবার থেকেই সারা দেশে নিম্ন আদালত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। এজন্য রোববার রাতে হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানীর স্বাক্ষরে সুপ্রিম কোর্ট থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে নিম্ন আদালতে বিচার কাজ বন্ধ ছিলো। তবে জরুরি বিষয় শুনানির জন্য এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট খোলা রাখা হয়েছিলো। শুধুমাত্র প্রতিদিনকার গ্রেফতার করা আসামিদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই ম্যাজিস্ট্রেট আদালত খোলা ছিলো। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘প্রত্যেক জেলার জেলা ও দায়রা জজ, মহানগর এলাকার মহানগর দায়রা জজ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক, শিশু আদালতের বিচারক এবং চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিজে অথবা তার নিয়ন্ত্রণাধীন এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট দ্বারা- ‘আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার আইন, ২০২০’ এবং হাইকোর্ট কর্তৃক জারীকৃত এতদসংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি অনুসরণ পূর্বক শুধু জামিন ও অতীব জরুরি ফৌজদারী দরখাস্তসমূহ নিস্পত্তি করার উদ্দেশ্যে ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।’ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ‘হাইকোর্ট বিভাগ হতে দেয়া জামিন আদেশের ক্ষেত্রে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট জামিননামা দাখিল করতে হবে। এছাড়াও সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় প্রত্যেক চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক শারীরিক উপস্থিতিতে দায়িত্ব পালন করবেন।’

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More