জীবননগরে শহীদ ডা. মিলন দিবসের আলোচনাসভায় জাসদ নেতা বাবু

আসুন অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করি

জীবননগর ব্যুরো: বাংলাদেশ জাসদ কেডিকে ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলন দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ জাসদ কেন্দ্রীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম বাবু বলেন, শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলন স্বপ্ন দেখতেন গণতন্ত্রের। গণমানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করণের। কমমূল্যে জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে। কিন্তু তার সেই স্বপ্ন স্বৈরাচার সরকার পূরণ হতে দেয়নি। স্বৈরাচার সরকারের ছোড়া তপ্ত বুলেটে মেধাবী এ চিকিৎসক দেশের গণতন্ত্রের জন্য প্রাণ বিসর্জন দেন। তিনি বলেন, আসুন আমরা আরেকবার লড়াই সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধ হই, মানুষের ভোটাধিকার ও অংশগ্রহণমূলক যে নির্বাচন ব্যবস্থা তা ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করি।
বাংলাদেশ জাসদ কেডিকে ইউনিয়ন শাখার সভাপতি মন্টু মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিকেলে কাশিপুর দক্ষিণপাড়ায় অনুষ্ঠিত আলোচনসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাসদ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ জাসদ বাঁকা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি হযরত আলী, সাধারণ সম্পাদক রকিবুল ইসলাম, মনোহরপুর ইউনিয়ন শাখার সভাপতি আলমগীর হোসেন, কেডিকে ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক লাল্টু মিয়া ও জাসদ নেতা মিলন মল্লিক। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন জাসদ নেতা হারুন-অর-রশিদ।
উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর তৎকালীন সময়ের বিএমএর যুগ্ম-মহাসচিব ডা. শামসুল আলম খান মিলনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিলো। এর পরপরই গণআন্দোলনের মুখে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More