জ্বালানি তেল নিয়ে গুজব ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা

 

স্টাফ রিপোর্টার: পেট্রোল পাম্প থেকে জ্বালানি তেল সরবরাহ কমিয়ে দেয়া হচ্ছে বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। খোদ পেট্রোল পাম্প মালিকদের একাংশের একটি সংগঠন পেট্রোল পাম্পে নোটিশ লাগিয়ে তেল কম সরবরাহ করা হবে বলে জানাচ্ছে। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের নির্দেশনার একটি নোটিশের ছবি ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে পোস্ট করছেন। ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘জ্বালানি সাশ্রয়ের নিমিত্তে মোটরসাইকেলের জন্য সর্বোচ্চ ৪০০ টাকার অকটেন এবং গাড়িতে সর্বোচ্চ ৩ হাজার টাকার অকটেন বা ডিজেল নেওয়া যাবে।’ তবে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) এবং পেট্রোবাংলা থেকে জানানো হয়েছে, এ ধরনের কোনো নির্দেশনা জারি করেনি সরকার। জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মীর আসলাম উদ্দিন জানান, এই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। যদি কেউ এই ধরনের কাজ (নোটিশ) করে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। সংগঠনের নির্দেশনা জারি করা অংশের সভাপতি সাজ্জাদুল করিম কাবুল বলেন, আমরা পাম্প মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আগে ডিপো থেকে যে পরিমাণ তেল পাওয়া যেত তার তুলনায় কম পাচ্ছি। এই কারণে একটু বুঝে-শুনে বিক্রির কথা বলেছি আমরা। এটিকে নির্দেশনা না বলে পরামর্শ বলতে চাই।  তিনি আরও বলেন, আমরা বলেছি, যাতে সবাই তেল পায়, কেউ ফিরে না যায়, এজন্য পাম্পে যে তেল আছে সেটিই ভাগ করে যে পরিমাণ দেয়া দরকার সেটুকু দিতে। অনেকেই গাড়ি ভরে তেল নিতে চান, যদিও তা আপাতত দেয়া হচ্ছে। এদিকে অন্য অংশের সংগঠনের সভাপতি নাজমুল হক বলেন, এ ধরনের কোনো নির্দেশনা সরকারের পক্ষ থেকে আমরা পাইনি। আমরাও এই ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত জারি করিনি। এই মুহূর্তে এই ধরনের সিদ্ধান্ত মানুষকে আতঙ্কিত করবে। মানুষ মনে করবে তেলের সংকট সৃষ্টি হয়েছে। তারা তখন আতঙ্কিত হয়ে তেল মজুত করা শুরু করবে। এতে অরাজকতা সৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More